ঢাকা, সোমবার, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

রাজনীতি মানুষের জন্য, পেটের ক্ষুধার জন্য না

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০২০১ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৩, ২০২১
রাজনীতি মানুষের জন্য, পেটের ক্ষুধার জন্য না

বরিশাল: বরিশাল সিটি করপোরেশনের (বিসিসি) মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ বলেছেন, রাজনীতি মানুষের জন্য, পেটের ক্ষুদা নিবারণ করার জন্য না। আমরা যারা রাজনীতি করি আমাদের মানসিকতার পরিবর্তন করতে হবে।

বিসিসির চতুর্থ পরিষদের শপথ গ্রহণের তিন বছর পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া-মোনাজাত অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।  

শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) দিনগত রাতে বরিশাল নগরের কালী বাড়ি রোডস্থ সেরনিয়াবাত ভবন কম্পাউন্ডে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

এ সময় সাদিক আব্দুল্লাহ বলেন, জাতির জনকের আদর্শকে অনুসরণ করে আমরা রাজনীতি করি। সোনার বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে আমরা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা রাজনীতি করি। আজ সবার মধ্যে সেই চেতনা আসা উচিত যে- আজ আমরা রাজনীতি পেটের ভাতের জন্য নয়, সোনার বাংলাদেশ গড়ার জন্য করছি। যতদিন এটা মনের ভেতর গেঁথে রাখতে না পারবো ততদিন কোনো পরিবর্তন আনতে পারবো না।

মেয়র বলেন, আজ দেশ স্বাধীন, আজ আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায়, আজ আমি এ শহরের মেয়র, আজ আমি রাজনীতি করি জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য।  

এ সময় তিনি আগামী দুই বছরে নগরীবাসীর আশা আকাঙ্ক্ষা পূরনে সাধ্যমতো চেষ্টা করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। সাদিক আব্দুল্লাহ বলেন, গত তিন বছরে আমার সাধ্য অনুযায়ী যতটুকু পেরেছি করার চেষ্টা করেছি। আমার যদি কোনো ভূল-ত্রুটি হয়ে থাকে আপনাদের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। আমি আপনাদের সন্তান, আপনাদের ভাই, বন্ধু। আমার কোনো অপরাধ হয়ে থাকলে দেখবেন সেখানে কোনো ব্যক্তিগত উদ্দেশ্য আছে কিনা। ব্যক্তিগত উদ্দেশ্য থাকলে এটা অবশ্যই আমার অপরাধ। কিন্তু এটা যদি দেখেন আমার সংগঠনের জন্য, আমার শহরের জন্য, আমার সিটি করপোরেশনের জন্য কিংবা ১০০ বা হাজার মানুষের বৃহৎ স্বার্থে তাহলে আপনাদের আমার প্রতি অভিমান বা অভিযোগ করাটা অন্যায় হবে বলে আমি মনে করি।

তিনি বলেন, আমি জনগণের সেবক হয়ে কাজ করছি। পাত্রের ছিদ্র যদি বন্ধ না করি তবে যত পানি ঢালিই না কেন তা বের হয়ে যাবে। আমি চেষ্টা করেছি ছিদ্র বন্ধ করার। গত ৩ বছরে বরিশাল সিটি করপোরেশনকে দুর্নীতিমুক্ত ও নিজের পায়ে দাঁড়ানোর লক্ষ্যে কাজ করেছি। সিটি করপোরেশনে সর্ব প্রথম পেভার মেশিন দিয়ে ৫ বছর মেয়াদি সড়ক নির্মাণ করে স্থায়ী উন্নয়নের লক্ষ্যে আগাচ্ছি।

সিটি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন- মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ কে এম জাহাঙ্গীর, সহ-সভাপতি আফজালুল করিম, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তালুকদার মো. ইউনুস।  

পরে দোয়া-মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। ২০১৮ সালের এদিনে বর্তমান পরিষদের মেয়র ও কাউন্সলিররা শপথ গ্রহণ করেন।

বাংলাদেশ সময়: ০২০০ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৩, ২০২১
এমএস/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa