ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ২৬ রবিউস সানি ১৪৪৩

জাতীয়

নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম কমানোর দাবি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৩২ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৬, ২০২১
নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম কমানোর দাবি

ঢাকা: নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম কমানোর দাবিতে মানববন্ধন করেছে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন ও ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়ন বাংলাদেশ (ইনসাব)।

শনিবার (১৬ অক্টোবর) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে সংগঠন দুটির পক্ষ থেকে এ দাবি জানানো হয়।

সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বৈশ্বিক মহামারিতে বিশ্বব্যাপী প্রায় ৫০ লাখ মতো মানুষের মৃত্যু, শিল্প কারখানায় উৎপাদন হ্রাস, ব্যবসা-বাণিজ্যে স্থবিরতা, কর্মহীনতা, বেকারত্ব, শিক্ষা, চিকিৎসাসহ সামাজিক বিপর্যয়ের মুখোমুখি দেশের মানুষ। আমাদের দেশে ইতোমধ্যে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা ২৭ হাজার ছাড়িয়েছে। নতুন করে বেকারের তালিকায় যুক্ত হয়েছে প্রায় আড়াই কোটির অধিক মানুষ। দারিদ্র্যসীমার নিচে নেমেছেন এক কোটির ওপর জনগণ। সর্বোপরি ব্যবসা-বাণিজ্যে মন্দা, কর্মহীনতা, উৎপাদন-বন্টনসহ সর্বস্তরে মানুষের আয় কমেছে। ইতোমধ্যে রেমিটেন্সের গতিও কমে আসছে। দুর্ভাগ্যজনকভাবে দেশে এই সামাজিক অস্থিরতার মুখোমুখি পরিস্থিতিতে ইতোমধ্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদির ঊর্ধ্বমুখী অব্যাহত মূল্য বাড়া জনজীবনে অন্ধকার নেমে আসছে। দ্রব্যমূল্যের পাগলা ঘোড়া থামানোর মতো কোনো উদ্যোগ না থাকায় দেশবাসীর সঙ্গে আমরা গভীর উদ্বিগ্ন ও ক্ষুব্ধ।

তিনি বলেন, দেশে নিম্নআয়ের মানুষ প্রতিনিয়ত পরিবার-পরিজন নিয়ে অস্থিরতা ও বিপর্যয়ের মুখোমুখি হয়ে পড়েছে। নিত্যপ্রয়োজনী দ্রব্যের সঙ্গে করোনায় বিপর্যয়ের পাশাপাশি মশার উপদ্রব ডেঙ্গু জ্বরের আতঙ্ক বিভিন্ন অঞ্চলে ইনফ্লুয়েঞ্জাসহ শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত হবার ঘটনা দেশবাসীকে আরও উদ্বিগ্ন করে তুলেছে। সরকারি হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসাসেবার বেহাল অবস্থা মানবজীবনকে বিপন্ন করে তুলছে। তাই আমরা অবিলম্বে চাল, ডাল, তেল, পেঁয়াজ, চিনি, আটা-ময়দাসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম কমানোর পাশাপাশি স্বাস্থ্যসেবা খাতসহ সব ক্ষেত্রের দ্রুত উন্নয়নের জোর দাবি জানাচ্ছি। সেই সঙ্গে দেশে ও বিদেশ ফেরত বেকার শ্রমজীবী মানুষদের জন্য বিকল্প কর্মসংস্থান ও রেশনিং ব্যবস্থা চালুর দাবি জানাচ্ছি।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩২ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৬, ২০২১
এসএমএকে/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa