ঢাকা, শনিবার, ১ কার্তিক ১৪২৮, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

রাঙ্গাবালীতে মিললো ২৫ বিষধর সাপ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৩, ২০২১
রাঙ্গাবালীতে মিললো ২৫ বিষধর সাপ রাঙ্গাবালীতে মিললো ২৫ বিষধর সাপ

পটুয়াখালী: পটুয়াখালী জেলার রাঙ্গাবালী উপজেলার নুরু মিয়া নামে এক সাপুড়ের কাছ থেকে ২৫টি পদ্মগোখরা (বিষধর) সাপ উদ্ধার করা হয়েছে। এর মধ্যে প্রাপ্তবয়স্ক সাপ দু’টি এবং ২৩টি বাচ্চা।

জীববৈচিত্র্য রক্ষায় নিয়োজিত মোহাম্মদ রোমান নামে এক কর্মীর মাধ্যমে সাপগুলো উদ্ধার করা হয়।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) বিকেলে রাঙ্গাবালীর কানকুনি পাড়া রেঞ্জের বিট কর্মকর্তা মোহাম্মদ শোয়েব খানের উপস্থিতিতে বন বিভাগের সংরক্ষিত গহিনখালি বনে সাপগুলো অবমুক্ত করা হয়।

এ সময় সাপুড়ে নুরু মিয়া ও স্বেচ্ছাসেবক মোহাম্মদ রোমান উপস্থিত ছিলেন।

অ্যানিমাল লাভারস অব পটুয়াখালীর স্বেচ্ছাসেবী মোহাম্মদ রোমান বলেন, সাপুড়ে নুরু মিয়া বিক্রির উদ্দেশে সাপগুলো বিভিন্ন জায়গা থেকে সংগ্রহ করে লালনপালন করছিলেন। আমরা খোঁজ পেয়ে সাপুড়ে নুরু মিয়াকে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইন-১২ সম্পর্কে জানাই। পরে নুরু মিয়া না জেনে ভুল কাজ করার জন্য ক্ষমা চান এবং পরবর্তীতে আর কখনো এমন কাজ করবেন না বলে অঙ্গিকার করেন। তিনি ২টা প্রাপ্তবয়স্ক পদ্মগোখরা ও ২৩টি পদ্মগোখরা সাপের বাচ্চা আমাদের কাছে দিয়ে দেন।

নোমান আরও বলেন, আমরা নুরু মিয়াকে আধুনিক সাপ উদ্ধার করার ট্রেনিং দেওয়ার ব্যবস্থা করবো এবং সাপ উদ্ধার করতে যাতে কোনো বিপদ না ঘটে সেজন্য আধুনিক যন্ত্রপাতির ব্যবস্থা করে দেব।

সাপুরে নুরু মিয়া বলেন, আমার ভুল হয়েছে। আগে আমাকে কেউ বুঝায়নি। আজ আমি সাপগুলো ছেড়ে দিতে পেরে আনন্দিত। আমি এখন থেকে আর কখনো বন্যপ্রাণী বেচাকেনার সঙ্গে জড়িত হবো না এবং বন্যপ্রাণী রক্ষায় আমরা একসঙ্গে কাজ করবো।

মঙ্গলবারও (১২ অক্টোবর) রাঙ্গাবালী উপজেলার নেতা গ্রাম থেকে একটি Banded krait (শঙ্খিনি) সাপ উদ্ধার করে অবমুক্ত করে অ্যানিমাল লাভারস অব পটুয়াখালীর সদস্যরা।

বাংলাদেশ সময়: ১৯১০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৩, ২০২১
এমআরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa