ঢাকা, শনিবার, ১ কার্তিক ১৪২৮, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

ফের ‘ফাঁদ’ পাতছে দুদক

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৩, ২০২১
ফের ‘ফাঁদ’ পাতছে দুদক দুদক কমিশনার ড. মোজাম্মেল হক খান

ঢাকা: ঘুষখোর ধরতে আবারও ফাঁদ পাতা শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। আগামী দিনে শিগগিরই এটি দৃশ্যমান হবে বলে জানিয়েছেন দুদক কমিশনার ড. মোজাম্মেল হক খান।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) নিজ কার্যালয়ে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে তিনি একথা বলেন।

দুদক কমিশনার বলেন, বিগত দুই বছর কোভিডের কারণে আমাদের সোশ্যাল ডিসটেন্সসিং, সরকারি আদেশ পালন এবং স্বাস্থ্য বিধি অনুসরণ করায় বাইরের কাজগুলো তেমন একটা হয়নি। অফিসের কাজ ভার্চ্যুয়াল মিটিংয়ে ইভ্যালিংয়ের মাধ্যমে যেগুলো সম্ভব সেগুলো আমরা করেছি। কিন্তু ফাঁদ মামলা তো আর ভার্চ্যুয়াল করা যাবে না। এখন আমাদের যেহেতু কোভিডের অবস্থা ভালো। এখন আমরা অনেকটা নিরাপদ ইনশাআল্লাহ। আমরা আবারও শুরু করেছি ফাঁদ পাতার কাজ। আগামী দিনে শিগগিরই দৃশ্যমান হবে।

এদিকে ২০১৯ সালে একটি প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে ঘুষের টাকা নিতে রাজধানীর সেগুনবাগিচার সেগুন হেটেলে এসেছিলেন নৌ পরিবহন অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী ড. এস এম নাজমুল হক। পূর্ব তথ্য অনুযায়ী ফাঁদ পেতে তাকে ধরে ফেলে দুদক। একই ভাবে দুদকের জালে ধরা পড়েন সরকারি এই প্রতিষ্ঠানটির আরও এক প্রধান প্রকৌশলী একেএম ফখরুল ইসলাম, অধিদপ্তরের ইঞ্জিনিয়ার অ্যান্ড শিপ সার্ভেয়ার মির্জা সাইফুর রহমান। ঘটনাগুলো একই বছরের।

শুধু নৌ পরিবহন অধিদপ্তর নয়, দুদকের হাতে ঘুষের টাকাসহ আটক হয়েছেন কুষ্টিয়া সাব-রেজিষ্টার সুব্রত কুমার সিংহ, ময়মনসিংহের ত্রিশাল ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা হেলাল উদ্দিন, শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলার সাব-রেজিস্ট্রার আব্দুর রহমান ভূঁইয়াসহ আরও অনেকে।

তবে, করোনার কারণে গত দু’বছর ধরে বন্ধ রয়েছে সে কার্যক্রম। দুদকের সর্বশেষ প্রকাশিত বার্ষিক প্রতিবেদন অনুযায়ী ২০১৫ সাল থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত ৭২ দুর্নীতিবাজকে ঘুষের ফাদ ফেলে ধরেছে দুদক। এর মধ্যে সব চেয়ে বেশি ধরা পড়ে ২০১৭ সালে। ওই বছর ঘুষের টাকাসহ ২৪ জনকে গ্রেফতার করে দুদক। ঘুষসহ ধরা পড়া সবার বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দিয়েছে দুদক। হটলাইন ১০৬-এ কল দিয়ে ঘুষ-দুর্নীতির তথ্য জানাতে জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি।

বাংলাদেশ সময়: ১৯১০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৩, ২০২১
এসএমএকে/এমএমজেড

 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa