ঢাকা, রবিবার, ৮ কার্তিক ১৪২৮, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

কলাবাগান মাঠে পূজার অনুমতি প্রার্থনা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫২৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ৮, ২০২১
কলাবাগান মাঠে পূজার অনুমতি প্রার্থনা

ঢাকা: ২০০৭ সাল থেকে ধারাবাহিকভাবে কলাবাগান মাঠে শারদীয় দুর্গা পূজা আয়োজন করে আসছে ধানমণ্ডি সার্বজনীন পূজা উদযাপন কমিটি। এবার স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে অনুমতি পেলেও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন অনুমতি দেয়নি।

দ্রুত সময়ের মধ্যে কলাবাগান মাঠে দুর্গাপূজা উদযাপনের অনুমতি চেয়েছে উদযাপন কমিটি৷

শুক্রবার (০৮ অক্টোবর) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির নসরুল হামিদ মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন থেকে এ দাবি জানানো হয়।

আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে কলাবাগান মাঠে পূজা করতে না দেওয়া হয় অথবা বাধাগ্রস্ত করা হয় তাহলে ঢাকাসহ সারাদেশে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ, আন্দোলন, সকল পূজা মন্দিরে কালো পতাকা প্রদর্শন ও সেই সঙ্গে গণ অনশন কর্মসূচি পালন করা হবে বলে জানিয়েছে উদযাপন কমিটি।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন- ধানমন্ডি সার্বজনীন পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক সমেন সাহা।

এতে আরো উপস্থিত ছিলেন- কমিটির সভাপতি প্রকৌশলী শৈলেন্দ্র নাথ সাহা, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি ড. নিম চন্দ্র ভৌমিক, পূজা উদযাপন পরিষদের সাবেক সভাপতি জয়ন্ত সেন দিপু, পূজা উদযাপন পরিষদের সাবেক সভাপতি কাজল দেবনাথ, মহানগর সার্বজনীন পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক কিশোর কুমার মণ্ডল, বাংলাদেশ জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুকুমার চৌধুরী, বিশ্ব হিন্দু পরিষদ বাংলাদেশ শাখার সাধারণ সম্পাদক কপিল কৃষ্ণ মণ্ডল প্রমুখ।

লিখিত বক্তব্যে সম্পাদক সমেন সাহা বাংলানিউজকে বলেন, ধানমন্ডি, কলাবাগান, হাজারীবাগ, মোহাম্মদপুর নিউমার্কেট ও আশে পাশের এলাকার বাসিন্দারা ২০০৭ সাল থেকে কলাবাগান ক্রীড়াচক্র মাঠে সার্বজনীন শারদীয় দুর্গাপূজা উদযাপন করে আসছি। অত্র এলাকার প্রায় ৬০ হাজার হিন্দু অধিবাসীর জন্য কোনো মন্দির না থাকায়, কলাবাগান ক্রীড়াচক্র মাঠেই বিগত ১৪ বছর ধরে সার্বজনীন শারদীয় দুর্গাপূজা উদযাপন করে আসছি। আপনারা জানেন ঐতিহ্যবাহী এই পূজা সারা বাংলাদেশে সপ্তমবার প্রথম স্থান অর্জন করেছে।

তিনি বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে পূজা উদযাপনের জন্য ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র মহোদয় বরাবর লিখিত অনুমতি প্রার্থনা করি। কিন্তু দীর্ঘ এক মাস অতিবাহিত হওয়ার পর বারবার যোগাযোগ করেও কোনো রকম সন্তোষজনক সাড়া পাইনি। অন্য বছরের মতো এ বছরও ১৫তম বারের মতো সার্বজনীন শারদীয় দুর্গাপূজা উদযাপন করার জন্য সমস্ত প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছি। বিগত ২৯ অক্টোবর স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী তাজুল ইসলামের শরণাপন্ন হলে তিনি আমাদের আহ্বানে সাড়া দিয়ে দুই দিনের মধ্যে পূজা উদযাপন করার অনুমতি দেন। কিন্তু মন্ত্রণালয়ের অনুমতি পত্র থাকা স্বত্ত্বেও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের অসহযোগিতা ও বাধার কারণে আমরা পূজা উদযাপন করতে পারছি না।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২২ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৮, ২০২১
ডিএন/এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa