ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ কার্তিক ১৪২৮, ২১ অক্টোবর ২০২১, ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

গরিবের ভিজিএফ’র চাল বিতরণে চেয়ারম্যানের অনিয়ম

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৮২৪ ঘণ্টা, জুলাই ১৯, ২০২১
গরিবের ভিজিএফ’র চাল বিতরণে চেয়ারম্যানের অনিয়ম

নরসিংদী: নরসিংদীর রায়পুরায় অতি দরিদ্রদের সামাজিক নিরাপত্তাবেষ্টনী কার্যক্রম ভালনারেবল গ্রুপ ফিডিং (ভিজিএফ) এর চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার হাইরমারা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাহফুজুল হক বাবলার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ তুলেন উপকারভোগীরা।

 

জানা যায, জনপ্রতি উপকারভোগী ১০ কেজি করে চাল পাবেন। কিন্তু চেয়ারম্যান বাবলা বিতরণ করেছেন সর্বনিম্ন ছয় কেজি থেকে আট কেজি পর্যন্ত। এ ঘটনায় চরম ক্ষোভ জানিয়েছেন উপকারভোগীরা।

উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক অফিস সূত্রে জানা যায়, হাইরমারা ইউনিয়নে ভিজিএফ কার্ডধারী এক হাজার ১১০ জন উপকারভোগীর জন্য ১১ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়। শনিবার (১৭ জুলাই) হাইরমারা ইউপি চেয়ারম্যান ও ট্যাক অফিসারের উপস্থিতিতে চাল বিতরণ করা হয়। তবে চাল বিতরণের অনিয়ম নিয়ে অভিযোগ করেন উপকারভোগীরা।

হাইরমারা ইউনিয়নের বীরকান্দি গ্রামের এক নারী উপকারভোগীরা জানান, সকালে এসেছেন চাল নেওয়ার জন্য। তারা কেউ ১০ কেজি চাল পাননি। চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যরা তাদের পছন্দের লোকদের পরিমাণের চেয়ে বেশি চাল দিয়েছেন। এতে তাদের ভাগে চাল কম পড়েছে।

পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক (ট্যাক অফিসার) আফজাল হোসাইন জানান, চাল বিতরণকালে সর্বক্ষণ ছিলেন তিনি। ওজনে কাউকে সাড়ে নয় কেজির কম দেওয়া হয়নি। পরে অবশিষ্ট চাল অতালিকাভুক্ত দরিদ্রদের মধ্যে বিতরণ করা হয়েছে। যাদের নাম তালিকায় নেই তারাই কম পেয়েছেন বলে জানান তিনি।

তবে চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ অস্বীকার করে ইউপি চেয়ারম্যান মাহফুজুল হক বাবলা জানান, ১০ কেজির স্থলে নয় কেজি হতে পারে। তবে এতটা কম হওয়ার কথা নয়।

রায়পুরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আজগর হোসেন জানান, চাল বিতরণে এ ধরনের অনিয়ম হওয়ার কথা নয়। এ ব্যাপারে খোঁজ নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ০৮২৪ ঘণ্টা, জুলাই ১৯, ২০২১
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa