ঢাকা, বুধবার, ৪ কার্তিক ১৪২৮, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

ফাঁকা টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়ক

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪২৭ ঘণ্টা, জুলাই ১৮, ২০২১
ফাঁকা টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়ক

টাঙ্গাইল: অতিরিক্ত যানবাহনের চাপে ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু মহাসড়কে শনিবার রাত থেকে যানজট থাকলেও রোববার (১৮ জুলাই) সকাল থেকে তা স্বাভাবিক হতে থাকে। দুপুর থেকে স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক কম যানবাহন চলাচল করছে।

যানজট না থাকায় নির্বিঘ্নে বাড়ি ফিরছে মানুষ।

আসন্ন ঈদকে কেন্দ্র গত কয়েকদিন ধরে বঙ্গবন্ধু সেতু হয়ে স্বাভাবিকের চেয়ে কয়েকগুন বেশি যানবাহন চলাচল করছে। বঙ্গবন্ধু সেতুর টোলপ্লাজা সূত্র জানায়, শনিবার সকাল ৬টা থেকে রোববার সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ৩২ হাজার ৭১৩টি যানবাহন সেতু পারাপার হয়েছে। স্বাভাবিক অবস্থায় ১২-১৩ হাজার যানাবহন পারাপার হয়।  

এর আগে, শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে শনিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ৩৩ হাজার ৯১২টি যানবাহন পারাপার হয়েছে। ফলে অতিরিক্ত যানবাহনের চাপে শুক্রবার ও শনিবার বিভিন্ন সময় বঙ্গবন্ধু সেতু থেকে টাঙ্গাইল পর্যন্ত ২৫ থেকে ৩০ কিলোমিটার যানজটের সৃষ্টি হয়। থেমে থেমে চলতে গিয়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা মহাসড়কে কাটাতে হয় যাত্রীদের। রোববার সকাল থেকে যানবাহনের চাপ কমতে থাকে। সেই সঙ্গে কেটে যেতে থাকে যানজট। সকাল ১১টার মধ্যে মহাসড়ক যানজটমুক্ত হয়ে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসে।

দুপুর ১২টায় মহাসড়কের টাঙ্গাইল শহর বাইপাস মোড় থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পর্যন্ত সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক কম যানবাহন রাস্তায়। তাই ফাঁকা রাস্তায় দ্রুত গতিতে ছুটে চলছে যানবাহনগুলো। কোথাও থামতে হচ্ছে না। তবে সেতু এলাকায় গিয়ে দেখা যায় টোলপ্লাজা থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার যানবাহনের সাড়ি রয়েছে।  

সেতু কর্তৃপক্ষ জানায়, টোল দিতে গিয়ে যানবাহনের এই লাইনের সৃষ্টি হয়েছে। তবে খুব বেশি সময় দাঁড়িয়ে থাকতে হচ্ছে না।

এলেঙ্গা সিএনজি স্টেশনে ঢাকা থেকে বগুড়াগামী মাইক্রোবাসের যাত্রী হাবিবুর রহমান বাংলানিউজকে জানান, ঢাকা থেকে তিন ঘণ্টার কম সময়ে এলেঙ্গা পর্যন্ত চলে এসেছেন। কোথাও যানজটে পড়তে হয়নি। অন্যবার ঈদের আগে বাড়ি ফিরতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা মহাসড়কে যানজটে আটকে থাকতে হতো।  

রাজশাহীগামী বাসের চালক সেলিম মিয়া বাংলানিউজকে জানান, রোববার সকাল থেকেই মহাসড়কে যানবাহনের চাপ নেই।

এলেঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইয়াসির আরাফাত বাংলানিউজকে জানান, সিরাজগঞ্জের দিকে গাড়ি টানতে পারলে যানজট হবে না বলে আশা করা যাচ্ছে। তবে রোববার রাত থেকে আবার গাড়ির চাপ বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪২২ ঘণ্টা, জুলাই ১৮, ২০২১
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa