ঢাকা, সোমবার, ৯ কার্তিক ১৪২৮, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

'ত্রাণ দিয়া কয়দিন খাইতে পারবো, অনেক অনেক শুকরিয়া করি'

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩০২ ঘণ্টা, জুলাই ১৫, ২০২১
'ত্রাণ দিয়া কয়দিন খাইতে পারবো, অনেক অনেক শুকরিয়া করি'

রংপুর: রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলায় ৩০০ অসহায় ও অতিদরিদ্র পরিবারের ত্রাণ সহায়তা দিল কালের কণ্ঠ শুভসংঘ। আজ বৃহস্পতিবার মিঠাপুকুর কলেজ মাঠে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বসুন্ধরা গ্রুপের সহায়তায় এই ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন শুভসংঘের সদস্যরা।

ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে উপস্থিত হয়ে মিঠাপুকুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মামুন ভূইয়া বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ সহায়তা কার্যক্রম বাস্তবায়ন করার জন্য আমি কালের কণ্ঠ শুভসংঘকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই। বিশেষ করে ধন্যবাদ জানাই বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যানকে, তিনি দেশের প্রতি জেলার অসহায় মানুষকে খাদ্য সহায়তা দিচ্ছেন। কিছুদিন আগেও অসহায় মানুষদের জন্য সরকার থেকে সাহায্য করা হয়েছে। আপনাদের কখনও খাদ্যের অভাব হবে না। তাই আপনারা করোনা সুরক্ষায় সচেতন থাকবেন। অযথা কেউ ঘর থেকে বের হবেন না।

বসুন্ধরা গ্রুপের ত্রাণ সহায়তা নিতে এসেছেন বাবলু মিয়া। বার্ধ্যকের জন্য কেউ তাকে কাজ দেন না। আক্ষেপের সুরে তিনি বলেন, আমি কোনো কাম করবা পারি না। ধান কাটতেও কেউ নেয় না। বসি বসি থাকা লাগে। ছেলেও কোনো টাকা দেয় না। অভাবে আছি আমি। তোমাদের সাহায্য দিয়া ঈদ পর্যন্ত সুন্দরভাবে খেতে পারমু। আমারে যে সাহায্য করছে সে ভালো থাক সেই দোয়া করি।

রোজিয়া খাতুন নামের এক উপকারভোগী বলেন, আল্লায় বসুন্ধরা গ্রুপের মালিকের ওপর রহমত দেক। তাকে বেহেশত দেক। তার ত্রাণ দিয়া কয়দিন খাইতে পারবো। অনেক অনেক শুকরিয়া করি।

এই ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে আরো উপস্থিত ছিলেন কালের কণ্ঠ শুভসংঘের পরিচালক জাকারিয়া জামান, কালের কণ্ঠের রংপুর অফিস প্রধান স্বপন চৌধুরী, শুভসংঘের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক শামীম আল মামুন, সদস্য শরীফ মাহ্দী আশরাফ জীবন, মিঠাপুকুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শেখ সাদী সরকার, সাধারণ সম্পাদক সবুজ হোসেনসহ মিঠাপুকুর উপজেলার শুভসংঘের সেচ্ছাসেবী সাজেদুর রহমান, আনোয়ার সাদাত লিমন প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৩০০ ঘণ্টা, জুলাই ১৫, ২০২১
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa