ঢাকা, সোমবার, ২ কার্তিক ১৪২৮, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

'লকডাউনেও' কাজের খোঁজে বাধ্য হয়ে বাইরে নিম্ন আয়ের মানুষ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৩৪১ ঘণ্টা, জুলাই ১৩, ২০২১
'লকডাউনেও' কাজের খোঁজে বাধ্য হয়ে বাইরে নিম্ন আয়ের মানুষ ছবি: রাজিন চৌধুরী

ঢাকা: করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে চলমান কঠোর 'লকডাউনে' কর্মহীন হয়ে পড়ছেন অসংখ্য শ্রমজীবী মানুষ। ফলে অনেকটা বাধ্য হয়েই 'লকডাউনের' মধ্যেও কাজের খোঁজে বাইরে বেরুতে হচ্ছে তাদের।

বিশেষ করে দিন এনে দিন খাওয়া মানুষগুলো হয়ে পড়ছেন দিশেহারা।

সোমবার (১২ জুলাই) রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এবং বেশ কিছু নিম্ন আয়ের মানুষের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে এমনটিই। রিকশা শ্রমিক, নরসুন্দর, নির্মাণ শ্রমিক, হোটেলে শ্রমিকসহ বিভিন্ন শ্রমজীবী মানুষ এখন দিনাতিপাত করছেন অতি কষ্টে। ফলে 'লকডাউনের' মধ্যেও কাজের খোঁজে বাধ্য হয়ে বাইরে বেরুতে হচ্ছে তাদের।

রাজধানীর ধানমন্ডি এলাকার নির্মাণ শ্রমিক সাইফুল ইসলাম বলেন, তিন ছেলে-মেয়েকে নিয়ে কামরাঙ্গিচরের একটি বাড়িতে ভাড়া থাকি। মাসে সাড়ে পাঁচ হাজার টাকা ভাড়া দিতে হয়। করোনার প্রভাবে সব কাজ বন্ধ। এ কারণে জীবনের চাকাও যেন বন্ধ হতে চলেছে। প্রতিদিনের যে আয়-রোজগার তা দিয়ে বাসা ভাড়া দেওয়া তো দূরের কথা, পরিবারের সদস্যদের মুখে দু-বেলা দু-মুঠো আহারও তুলে দেওয়া কষ্ট। কাজ একদমই নেই বললেই চলে।

একই এলাকার দিন মজুর ইকরাম আলী বলেন, গত বছর থেকেই 'লকডাউনের' ফলে আগের মতো আর কাজ পাওয়া যায় না। আর এখন এই যে কঠোর 'লকডাউন' দিয়েছে সরকার, এতে তো বিপদ যেনো আরও বেড়েছে। আগে দু-একটা কাজ যা হোক পাওয়া যেতো, এখন তাও নেই। সকালে থেকে পথে পথে ঘুরলেও কাজ পাওয়া যায় না।

শুধু সাইফুল ইসলাম বা ইকরাম আলী নয়, 'লকডাউনের' ফলে এমন কঠিন অবস্থার মধ্য দিয়ে দিন যাপন করছেন হাজারো নিম্ন আয়ের মানুষ। নগরীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, ফুটপাতে এখন সাহায্যপ্রার্থীর সংখ্যা আগের তুলনায় বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রায় প্রতিটি সড়কেই একটু সাহায্যের আশায় বসে বসে ক্ষণ গুনছেন অসহায় মানুষগুলো। কথা বলে জানা যায়, নিজেদের আয়-রোজগার সব বন্ধ হয়ে যাওয়ার কারণে পথে নামতে বাধ্য হয়েছেন তারা।

কঠোর বিধিনিষেধে কর্মহীন এসব মানুষের সংসার চলবে কী করে তা নিয়ে চিন্তিত তারা। ফলে কাজের খোঁজে অনেকটা বাধ্য হয়েই এই কঠোর 'লকডাউনের' মধ্যেও বাইরে বেরুতে হচ্ছে। আবার 'লকডাউন' অমান্য করায় যাদের আটক করা হয়েছে, দেখা গেছে তাদের বেশিরভাগই খেটে খাওয়া, নিম্ন আয়ের মানুষ। যারা প্রতিদিনের আয় সংসারের ব্যয় নির্বাহ করে থাকেন।

এদিকে দেশব্যাপী মহামারি করোনা ভাইরাসের আক্রান্ত হয়ে (কোভিড-১৯) মৃত্যু ও সংক্রমণের হার ধীরে ধীরে বেড়েই চলেছে। গত কয়েক দিনের পরিসংখ্যানের জেরেই ওয়ার্ল্ডোমিটারের তালিকার দৈনিক মৃত্যুর শীর্ষ দশে জায়গা করে নিয়েছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ সময়: ০৩৪১ ঘণ্টা, জুলাই ১৩, ২০২১
এইচএমএস/কেএআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa