ঢাকা, শনিবার, ৭ কার্তিক ১৪২৮, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

সব সিটি করপোরেশনের রাস্তা আইডিভুক্ত হবে: মন্ত্রী

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১২০ ঘণ্টা, জুলাই ১৩, ২০২১
সব সিটি করপোরেশনের রাস্তা আইডিভুক্ত হবে: মন্ত্রী ...

ঢাকা: ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনসহ দেশের সব সিটি করপোরেশনের অন্তর্ভুক্ত রাস্তাসমূহ আইডিভুক্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

সোমবার (১২ জুলাই) জুম প্ল্যাটফর্মে অনুষ্ঠিত ডিএনসিসির দ্বিতীয় পরিষদের সপ্তম করপোরেশন সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন বলে রাতে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

মন্ত্রী বলেন, সিটি করপোরেশন থেকে যে সকল রাস্তা নির্মাণ করা হয়। এসব রাস্তার কোনো আইডি নাম্বার নেই। তাই এগুলো আইডিভুক্ত করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

এলজিইডির করা রাস্তার উদাহরণ দিয়ে তিনি আরো বলেন, তাদের করা সকল রাস্তার একটি আইডি নাম্বার রয়েছে। এই নাম্বার থাকার ফলে রাস্তা নির্মাণ, পাকাকরণ অথবা সংস্কার করতে সুবিধা হয়। রাস্তা নেই অথবা থাকলেও পাকা বা সংস্কার না করেও বিল দেখানো বা অনিয়ম করার সুযোগ থাকে। এ ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা আনার লক্ষ্যে সকল সিটি কর্পোরেশনের অন্তর্ভুক্ত রাস্তাসমূহ আইডিভুক্ত করা হবে।

তাজুল ইসলাম বলেন, ঢাকা শহরের অনেক খাল-জলাশয় ভুয়া কাগজ তৈরি করে দখল করা হয়েছে। শুধু তাই নয় দখল করে সেখানে বিভিন্ন ধরনের অবকাঠামো নির্মাণ করা হয়েছে।

তিনি জানান, বাসা বাড়িসহ যেকোনো ধরনের অবকাঠামো নির্মাণ করে থাকুক না কেনো এগুলো অবশ্যই দখলমুক্ত করতে হবে।

এ প্রসঙ্গে কল্যাণপুরের ওয়াটার পাম্পের জন্য অধিগ্রহণ করা ১৭৩ একর জমির মধ্যে মাত্র তিন একর বাদে সব অবৈধ দখল হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, যত প্রভাবশালীই হোক না কেনো কেউ অবৈধ দখল করে থাকলে তাদের কাছ থেকে মুক্ত করতেই হবে।

মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে মন্ত্রী বলেন, এক্ষেত্রে মেয়রের নেতৃত্বে কাউন্সিলররা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান সমূহের রাজস্ব আয় বৃদ্ধির মাধ্যমে স্বনির্ভর হওয়ার উপর গুরুত্ব আরোপ করে তাজুল ইসলাম বলেন, নাগরিক সেবা নিশ্চিত করতে পারলে জনগণ স্বেচ্ছায় কর দেবে। আয় বৃদ্ধি করতে গিয়ে মানুষের উপরে জুলুম করা যাবে না বলেও জানান তিনি।  

মন্ত্রী আরো জানান, ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা পরিষদ এবং পৌরসভাসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে প্রতি তিন মাস পর পর আয় ব্যয়ের হিসাব মন্ত্রণালয় পাঠানোর নির্দেশনা ইতোমধ্যে দেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, ঢাকা হচ্ছে বাংলাদেশের প্রাণকেন্দ্র। সারাবিশ্বের মানুষ এই শহরে আসে। এই শহরে রাস্তা-ঘাটে ময়লা-আবর্জনা পড়ে থাকতে দেখলে অথবা রাস্তায় চলতে দুর্গন্ধ পেলে স্বাভাবিকভাবেই আমাদের সম্পর্কে তাদের একটা নেতিবাচক ধারণা তৈরি হয়।

কাউন্সিলরদের তিনি বলেন, আমরা যদি আমাদের শহরটা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখি এবং সুন্দর দৃষ্টিনন্দন করে তৈরি করতে পারি তাহলে আমরা যেমন উপভোগ করতে পারবো তেমনি বাহিরের দেশে জাতি হিসেবে আমাদের ইমেজ বৃদ্ধি পাবে।

উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় সকল কাউন্সিলর এবং সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তারা অংশ নেন।

বাংলাদেশ সময়: ০১২০ ঘণ্টা, জুলাই ১৩, ২০২১
এমআইএইচ/কেএআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa