ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ কার্তিক ১৪২৮, ২১ অক্টোবর ২০২১, ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে কোপেনহেগেনে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ 

ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৩৩ ঘণ্টা, জুলাই ১২, ২০২১
স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে কোপেনহেগেনে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ 

ঢাকা: কোপেনহেগেনে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের নিয়ে গঠিত বাংলাদেশ একাদশ ও স্থানীয় ফুটবল দল “ইশয় আইএফ”-এর মধ্যে একটি প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে।  

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে কোপেনহেগেনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস এ প্রীতি ফুটবল ম্যাচের আয়োজন করে।

সোমবার (১২ জুলাই) কোপেনহেগেনের বাংলাদেশ দূতাবাস এ তথ্য জানায়।

কোপেনহেগেনে বসবাসরত প্রায় তিন শতাধিক প্রবাসী বাংলাদেশি খেলাটি উপভোগ করতে সপরিবারে মাঠে আসেন। সেই সঙ্গে অনেক ডেনিশ দর্শকও মাঠে ছিলেন। অনুষ্ঠিত এ খেলায় “ইশয় আইএফ” ৬-৪ গোলে জয়লাভ করে।       

খেলা শেষে একটি পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে ইশয় টাউনের মেয়র মহোদয় ওলে বিয়োরস্টপ এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন “ইশয় আইএফ”-ফুটবল ক্লাবের সভাপতি। এছাড়া কোপেনহেগেনস্থ বিভিন্ন দূতাবাসের কূটনীতিকরা এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।  

পুরস্কার বিতরণীতে ডেনমার্কে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম. আল্লামা সিদ্দীকী তার বক্তব্যের শুরুতেই বলেন, এ বছর আমাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, কারণ আমরা জাতির পিতার জন্মবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করছি।  

তিনি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে যারা দেশের জন্য অকাতরে জীবন বিলিয়ে দিয়েছিলেন, তাদের আত্মত্যাগের প্রতি সম্মান জানান রাষ্ট্রদূত।

খেলা দেখতে আসায় তিনি উপস্থিত প্রবাসী বাংলাদেশিদের ধন্যবাদ জানান।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে ভিশন ২০২১ এবং ভিশন ২০৪১ এর লক্ষ্যমাত্রাকে সামনে রেখে একটি উন্নত, সমৃদ্ধ ও কল্যাণকর রাষ্ট্র গঠনে সবাইকে অবদান রাখতে উদাত্ত আহ্বান জানান তিনি। পরিশেষে এ চমৎকার ফুটবল ম্যাচের জন্য উভয়দলের খেলোয়াড়দের অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানান রাষ্ট্রদূত।  

প্রধান অতিথি ইশয় টাউনের মেয়র তার বক্তব্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানান।  
তিনি বলেন, এ ধরনের ক্রীড়া উদ্যোগের মাধ্যমে ডেনিশ ও বাংলাদেশি জনগণের মধ্যে বন্ধুত্ব ও সম্প্রীতির মেলবন্ধন বৃদ্ধি পাবে ও পারস্পরিক সাংস্কৃতিক বিনিময় ঘটবে।  

তিনি এ ধরনের উদ্যোগের জন্য বাংলাদেশ দূতাবাসকে ধন্যবাদ জানান।  

বাংলাদেশ সময়: ১২৩২ ঘণ্টা, জুলাই ১২, ২০২১
টি আর/এসআই
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa