ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ কার্তিক ১৪২৮, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

সরকারি কনডম খোলা বাজারে বিক্রি, ইনজেকশনে নেওয়া হয় অর্থ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৫৪ ঘণ্টা, জুলাই ১১, ২০২১
সরকারি কনডম খোলা বাজারে বিক্রি, ইনজেকশনে নেওয়া হয় অর্থ

জামালপুর: জামালপুরের বকশীগঞ্জে সীমান্তবর্তী বাজারগুলোতে পরিবার-পরিকল্পনা অধিদপ্তরের জন্মবিরতিকরণ কনডম খোলা বাজারে বিক্রি করা হচ্ছে। সরকারি এসব পণ্য দোকানে দোকানে পাওয়া যাচ্ছে।

প্রতিটি কনডম ৩ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়াও জন্মবিরতিকরণ ইনজেকশন বিনামূল্যে বিতরণ করার কথা থাকলেও প্রতিটি ইনজেকশন ৬৫ টাকা করে নেওয়া হয় বলে অনেক ভুক্তভোগি পরিবার জানান।  

রোববার (১১ জুলাই) দুপুরে কামালপুর ইউনিয়নের লাউচাপাড়া বাজারের গিয়ে দেখা যায়, বেশ কয়েকটি দোকানে এসব পণ্য বিক্রি করা হচ্ছে। এ নিয়ে স্থানীয় প্রশাসন পুরোপুরি নীরব। অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় পরিবার পরিকল্পনা বিভাগ থেকে এসব পণ্য সূর্যের হাসি ক্লিনিক এনজিও এসব পণ্য তাদের কর্মী দ্বারা বিক্রি করে থাকে। সূর্যের হাসি ক্লিনিকের মোট ৩৩ জন কর্মী এসব কাজের সঙ্গে জড়িত।

সরকারি কনডম বিক্রেতা আব্দুল আওয়াল বাংলানিউজকে জানান, স্থানীয় সূর্যের হাসি ক্লিনিকের স্বাস্থ্যকর্মী রত্না বেগমের কাছ থেকে কিনে তিনি এসব বিক্রি করছেন।

এদিকে সূর্যের হাসি ক্লিনিকের কর্মী রত্না বেগম জানান, আমরা সূর্যের হাসি ক্লিনিক থেকে এসব পণ্য কিনে তা বিক্রি করেছি।

এ বিষয়ে স্থানীয় সুর্যের হাসি ক্লিনিকের প্রশাসনিক কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ জানান, তারা স্থানীয় পরিবার পরিকল্পনা বিভাগ থেকে কিনে কর্মীদের মাধ্যমে দম্পত্তির মধ্যে এসব বিক্রি করেন। তবে দোকানে বিক্রির বিষয়টি তিনি অস্বীকার করেন।

বকশীগঞ্জ পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মাজেদুর রহমান জানান, তাদের কোনো কর্মী এসব কাজের সঙ্গে জড়িত নয়। জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া কথা জানান তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫০ ঘণ্টা, জুলাই ১১, ২০২১
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa