ঢাকা, বুধবার, ৪ কার্তিক ১৪২৮, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

যশোরে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে ভাঙচুর, আহত ২

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৮৪৯ ঘণ্টা, জুলাই ১১, ২০২১
যশোরে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে ভাঙচুর, আহত ২

যশোর: যশোরে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে (বালক) শিশুরা সংগঠিত হয়ে ভাঙচুর করছে। এ ঘটনায় দুই শিশু আহত হয়েছে।

তাদের মধ্যে একজনকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে ও অপরজনকে কেন্দ্রে রেখেই চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

শনিবার (১০ জুলাই) রাত সাড়ে ১১টা থেকে কেন্দ্রের ভবনে দরজা বন্ধ করে ভাঙচুর করে তারা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার জন্যে কেন্দ্রে ৫০ থেকে ৬০ জন পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। একপর্যায়ে গভীর রাতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ ও দ্বিপাক্ষিক আলোচনায় পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত হয়।

পুলিশ ও কেন্দ্র সূত্রে জানা গেছে, এই কেন্দ্রে খাওয়া, চিকিৎসাসহ বিভিন্ন ধরনের সংকট রয়েছে। এসব সংকট নিয়ে শিশুরা বিভিন্ন সময়ে অভিযোগ-অনুযোগও করেছে। কিন্তু অবস্থার তেমন উন্নতি হয়নি। এরমধ্যে তিনদিন আগে আদালতের মাধ্যমে টঙ্গী থেকে একটি ছেলে এই কেন্দ্রে আসে। সেই ছেলেটি কেন্দ্রে অন্য নিবাসী শিশুদের সংগঠিত করে রাত সাড়ে ১১টার দিকে ভাঙচুর শুরু করে। ভবনের মূল ফটকে তালা দেওয়া থাকে। তারা ভেতর থেকে দরজা বন্ধ করে খাট-জানালাসহ আসবাবপত্র ভাঙচুর করতে থাকে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার জন্যে অন্তত ৫০ জন পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পুলিশ কেন্দ্রের মাঠে অবস্থান করছে। রাত সাড়ে ১২টার দিকে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কাজী সায়েমুজ্জামানসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা কেন্দ্রে যান। তারা শিশুদের নেতার সঙ্গে কথা বলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে।

যশোরের জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খান রাতে বাংলানিউজকে বলেন, ওই কেন্দ্রে এখন ৩শ মত শিশু অবস্থান করছে। তারা সংগঠিত হয়ে হঠাৎ রাতে ভাঙচুর চালিয়ে বিক্ষোভ দেখায়। রাত সাড়ে ১২টা পর্যন্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসেনি। পুলিশ ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সেখানে পাঠানো হয়েছে।

কেন্দ্রের সহকারী পরিচালক জাকির হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, আমরা কেন্দ্রে অবস্থান করছি। শিশুরা ভাঙচুর করছে। এতে দুই শিশু আহত হয়েছে। তাদেরকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৮৪৭ ঘণ্টা, জুলাই ১১, ২০২১
ইউজি/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa