ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩ কার্তিক ১৪২৮, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

কুড়িগ্রামের গোসাইর ভিটায় ২০০ বছরের পুরনো মূর্তি উদ্ধার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১১৯ ঘণ্টা, জুলাই ১০, ২০২১
কুড়িগ্রামের গোসাইর ভিটায় ২০০ বছরের পুরনো মূর্তি উদ্ধার উদ্ধারকৃত গো-মূর্তি।

কুড়িগ্রাম: কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার গোসাইর ভিটার প্রাচীন রাজবাড়ির ধ্বংসস্তুপ থেকে প্রায় ২০০ বছরের অতি প্রাচীন গো-মূতি উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা।

শনিবার (১০ জুলাই) বিকেলে ২০ কেজি ৫০০ গ্রাম ওজনের প্রাচীন গো-মূর্তিটি গোসাইয়ের ভিটার প্রভাষ চন্দ্রের বাড়ি থেকে উদ্ধার করে নাগেশ্বরী থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।


 
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার (০৯ জুলাই) দুপুরে নাগেশ্বরী উপজেলার নেওয়াশী ইউনিয়নের সুখাতী গোসাইর ভিটা গ্রামের প্রভাষ চন্দ্র, শ্রীধর, পরিমলসহ কয়েকজন গোসাইর ভিটার প্রাচীন রাজবাড়ির ধ্বংসস্তুপ থেকে পোড়া ইট ও পাথর সংগ্রহ করতে যায়। এসময় ইট-পাথরের নীচে কষ্টিপাথর সদৃশ্য গো-মূর্তিটির সন্ধান পায়।  

পরে তারা মূর্তিটির উদ্ধার করে সুখাতী গোসাইর ভিটা গ্রামের প্রভাষ চন্দ্রের বাড়িতে সংরক্ষণ করে। বিষয়টি লোকমুখে দ্রুত এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে মূর্তিটি দেখতে শত শত মানুষ ভিড় জমায়। পরে খবর পেয়ে শনিবার বিকেলে মূর্তিটি প্রভাষ চন্দ্রের বাড়ি থেকে নাগেশ্বরী থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

নেওয়াশী ইউনিয়নের সুখাতী গোসাইর ভিটা গ্রামের বৃদ্ধা চঞ্চলা বালা বাংলানিউজকে জানান, আমরা শুনেছি প্রায় ২০০ বছর আগে গোসাইর ভিটায় গোসাই নামে একজন জমিদারের বাড়ি ছিল। তারই নামে ওই গ্রামের নামকরণ করা হয় গোসাইর ভিটা। এটি ওই পুরনো বাড়ির মূতি বলে জানান তিনি।

নাগেশ্বরী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শহিদুল হক বাংলানিউজকে জানান, প্রভাষ চন্দ্রের বাড়ি থেকে মূতিটি থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। মূর্তিটি অতি প্রাচীন বিধায় এই মূতিটি সংরক্ষণের জন্য সরকারি আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ২১১৯ ঘণ্টা, জুলাই ১০, ২০২১
এফইএস/কেএআর

 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa