ঢাকা, রবিবার, ১ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

গলায় ফাঁস দিয়ে ব্যাংক কর্মকর্তার স্ত্রীর আত্মহত্যা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৩৮ ঘণ্টা, জুলাই ৯, ২০২১
গলায় ফাঁস দিয়ে ব্যাংক কর্মকর্তার স্ত্রীর আত্মহত্যা

ঢাকা: রাজধানীর দনিয়া বাজার এলাকার একটি বাসায় গলায় ফাঁস দিয়ে শারমিন আক্তার কেয়া (২২) নামে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার (৯ জুলাই) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে অচেতন অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

তার স্বামী ব্যাংক কর্মকর্তা মো. রুবেল হোসেন বাংলানিউজকে জানান, তাদের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের পাগলা এলাকায়। স্ত্রী ও দেড় বছরের একমাত্র ছেলেকে নিয়ে তারা নীলক্ষেত স্টাফ কোয়ার্টারে থাকেন। ৩ সপ্তাহ আগে দনিয়া বাজারে কেয়ার বাবা হাতেম আলির বাড়িতে যান। সেখানে তারা ছিলেন। সকালে সবার অগোচরে ‘স্বপ্নবিলাস’ নামে পঞ্চম তলা বাড়িটির চতুর্থ তলার রুমে গিয়ে দরজা বন্ধ করে দেন কেয়া। অনেক ডাকাডাকির পরও তিনি দরজা না খোলায় দরজা ভেঙে তাকে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় দেখতে পান। সেখান থেকে তাকে নামিয়ে দ্রুত ঢাকা মেডিক্যালে নিয়ে এলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

রুবেল হোসেনের দাবি, দীর্ঘদিন ধরে কেয়া ডিপ্রেশনে ভুগছিলেন। এজন্য তাকে চিকিৎসা করানো হচ্ছিল। এ কারণেই তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে। তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে দাবি করছে তার স্বামী। তবে থানা পুলিশকে জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১২৩৫ ঘণ্টা, জুলাই ০৯, ২০২১
এজেডএস/এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa