ঢাকা, সোমবার, ৯ কার্তিক ১৪২৮, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

সন্ধ্যা হলেই জমে আড্ডা...

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৪৪ ঘণ্টা, জুলাই ৮, ২০২১
সন্ধ্যা হলেই জমে আড্ডা... দোকানের সামনে চা- প্রেমীদের আড্ডা। ছবি: শাকিল আহমেদ

ঢাকা: মহামারি করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে কঠোর লকডাউনে সব ধরনের দোকানপাট বন্ধ থাকার কথা থাকলেও সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে চায়ের দোকানগুলোতে চলছে চা পান ও আড্ডা। বিশেষ করে সন্ধ্যার পর এই আড্ডা জমে ওঠে আরও বেশি করে।

বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) সন্ধ্যার পরে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায় চায়ের দোকানের জমজমাট আড্ডার চিত্র। এলাকার অলিগলিতে থাকা চায়ের দোকানগুলোতে এই সময় আড্ডা জমে বেশি।

রাজধানীর হাতিরপুল এলাকার এক চায়ের দোকানি বাংলানিউজকে বলেন, সারাদিন তো মানুষ চায়ের দোকানে আসে না। অল্প কিছু লোকজন আসে সন্ধ্যার পরে। সারাদিন ঘরে বন্দি থেকে তারও বোরিং হয়ে যায়। তাই এখন একটু দোকান খোলা রেখেছি।

ধানমন্ডি এলাকার এক চা বিক্রেতা বলেন, চা বিক্রি না করতে পারলে না খেয়ে মরতে হবে। তাই ঝুঁকি নিয়ে একটু দোকান খোলা। চা পান করতে আসা হায়দার আলী নামে এক ব্যক্তি বলেন, সারাদিন তো ঘরবন্দি, তাই সন্ধ্যার পর একটু চা খেতে নিচে আসা। গলির মধ্যে তো সবাই পরিচিত। আশা করি সমস্যা হবে না।

রাজধানীর হাতিরপুল ও ধানমন্ডি এলাকা ছাড়াও অন্যান্য স্থানেও সন্ধ্যা হলেই একটু একটু করে জমে ওঠে চায়ের আড্ডা। এই কঠোর লকডাউনের মধ্যে বিশেষ করে অলিগলির দোকানগুলো সিমিত পরিসরে খোলা হয়। ক্রেতারা চা নিয়ে সরে যান দোকান থেকে একটু দূরে। তারপর একজন, দুজন, তিনজন করে আড্ডা হয় অনেকটা সময়।

এছাড়া অলিগলির এসব আড্ডাতে দেখা মেলে না স্বাস্থ্য সতর্কতরাও। বিশেষ করে অনেকে আসেন মাস্ক ছাড়ায়। অনেকে আবার নিরাপদ দূরত্ব না মেনেই বসে পড়েন চায়ের কাপ হাতে মোবাইলে ৩/৪ জন মিলে লুডো খেলতে।

হাতিরপুল এলাকার কয়েকজন যুবককে আড্ডা দিতে দেখা গেলে কথা হলে তাদের একজন শরিফুল ইসলাম বলেন, বাসায় একা একা সময় কাটাতে আর ভালো লাগছে না। তাই বন্ধুদের ফোন করে এই জায়গায় আসতে বলেছি। একটু সময় কাটাতে। এখন বসে একটু গল্প করছি।

বাংলাদেশ সময়: ২২৩৮ ঘণ্টা, জুলাই ০৮, ২০২১
এইচএমএস/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa