ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ কার্তিক ১৪২৮, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

বাগেরহাটে ‘লকডাউন’ বাস্তবায়নে ভ্রাম্যমাণ বাজার চালু

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৫৭ ঘণ্টা, জুলাই ৮, ২০২১
বাগেরহাটে ‘লকডাউন’ বাস্তবায়নে ভ্রাম্যমাণ বাজার চালু

বাগেরহাট: ‘লকডাউন’ বাস্তবায়ন ও মানুষকে ঘরে রাখতে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের চাহিদা পূরণে বাগেরহাটে ভ্রাম্যমাণ বাজার চালু করা হয়েছে।  

বৃহস্পতিবার (০৮ জুলাই) সকালে বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ তন্ময়ের উদ্যোগে শহরের স্বাধীনতা উদ্যানের সামনে থেকে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়।

 

এসময় বাগেরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ভুইয়া হেমায়েত উদ্দিন, বাগেরহাট জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক ও সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সরদার নাসির উদ্দিন, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মাদ মোছাব্বেরুল ইসলাম, সদর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিজিয়া পারভীন, পৌর কাউন্সিলর আবুল হাশেম শিপন, শাহ নেওয়াজ মোল্লা দোলন, তৌহিদুর রহমান জনিসহ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

বাগেরহাট জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক সরদার নাসির উদ্দিন বলেন, সংসদ সদস্য শেখ তন্ময়ের উদ্যোগে ও জেলা যুবলীগের বাস্তবায়নে ‘লকডাউনে’ বেকার ভ্যানচালকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রয়োজনীয় পণ্য বিক্রিতে উদ্বুদ্ধ করা হয়েছে। বাগেরহাট সদর উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে একশ’টি ভ্যানে করে মাছ, মাংস, সবজি, দেশীয় ফলসহ বিভিন্ন প্রকার নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য বিক্রি হবে। পর্যায়ক্রমে এ ভ্রাম্যমাণ বাজার জেলার প্রতিটি উপজেলায় চালু করা হবে। এর মাধ্যমে মানুষ ঘরে বসেই তাদের নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য পাবেন। যার ফলে মানুষ ঘরে থাকতে উৎসাহ বোধ করবেন।

বাগেরহাট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মাদ মোছাব্বেরুল ইসলাম বলেন, আমরা বিভিন্ন সময় দেখেছি, বিনা প্রয়োজনেও কাঁচা বাজারে বিভিন্ন লোকজন ঘোরাফেরা করেন। এসব মানুষের কাঁচা বাজারে আসা বন্ধ করতে যে ভ্রাম্যমাণ বাজার চালু হয়েছে, তা ভূমিকা রাখবে। আমরা মানুষকে বলতে পারব, আপনার বাড়ির পাশে সবজি ও প্রয়োজনীয় পণ্য পাওয়া যায়, বাজারে আসার প্রয়োজন নেই। এছাড়াও ‘লকডাউনে’র মধ্যে বেকার ভ্যানচালকদেরও এক ধরনের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হলো।

এদিকে ‘লকডাউনে’ বেকার থাকা ভ্যানওয়ালারাও খুশি ভ্রাম্যমাণ বাজারে পণ্য বিক্রির সুযোগ পেয়ে। ভ্যানচালক আলম ফকির, বকুল হোসেন ও শেখ সেলিম বলেন, ‘লকডাউনে’ বাইরে বের হওয়া বন্ধ। ‘লকডাউনে’র নির্দেশনা মেনে আমরাও ভ্যান চালানো বন্ধ রেখেছিলাম। বেকার অবস্থায় খুবই কষ্টে যাচ্ছিল সংসার। সংসদ সদস্য সাহেবের উদ্যোগে ভ্রাম্যমাণ বাজারে পণ্য বিক্রির সুযোগ পেয়ে আমাদের খুব উপকার হলো। এখন কিছু আয় করে খেতে পারব।

এর আগে করোনা পরিস্থিতিতে ডক্টরস সেফটি চেম্বার, বাড়ি বাড়ি গিয়ে চিকিৎসা সুবিধা প্রদান, নমুনা সংগ্রহ ও করোনা পরীক্ষাসহ নানা উদ্যোগ নিয়েছিলেন বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ তন্ময়। যেসব কর্মসূচি এখন বাস্তবায়িত হচ্ছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৩ ঘণ্টা, জুলাই ০৮, ২০২১
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa