ঢাকা, রবিবার, ৮ কার্তিক ১৪২৮, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

বন্যার আগেই মহানন্দায় ভাঙন, হুমকির মুখে কৃষিজমি-স্থাপনা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪২৭ ঘণ্টা, জুলাই ৬, ২০২১
বন্যার আগেই মহানন্দায় ভাঙন, হুমকির মুখে কৃষিজমি-স্থাপনা

চাঁপাইনবাবগঞ্জ: বন্যা শুরু না হতেই আবারো মহানন্দার ভাঙনে হুমকির মুখে পড়েছে কৃষিজমিসহ নানা স্থাপনা। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার দেবিনগর ইউনিয়নে ইতোমধ্যেই শুরু হয়েছে ভাঙন।

 

গত বছর ভাঙনে অনেক আবাদি জমি নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। ভাঙন রোধে ব্যবস্থা নেওয়া না হলে এবার বন্যা মৌসুমে অনেক আবাদি জমি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাবে।

দেবীনগর গ্রামের আব্দুল করিম বলেন, গতবার ভাঙনে আমার এক বিঘা আবাদি জমি নদীতে চলে গেছে। এবার যদি পানি উন্নয়ন বোর্ড ভাঙন রোধে ব্যবস্থা না নেয় তাহলে আমার আরও অনেক জমি নদীতে হারিয়ে যাবে।

আরেক বাসিন্দা নুর মোহাম্মদ জানিয়েছেন, এ বছর বন্যায় সবচেয়ে বেশি হুমকির মুখে আছে দিলজান হাজীর টোলা, বাসেদ মণ্ডলের টোলা ও সামশুদ্দিন মণ্ডলের টোলা গ্রামের বাসিন্দা। মহানন্দার ভাঙনে দিশেহারা এসব এলাকার মানুষ। নদীভাঙনে কৃষিজমি হারিয়ে পথে বসেছেন অনেকেই। এখন ভিটেমাটি হারনোর শঙ্কায় দিন গুনছেন ওই গ্রামের মানুষরা।

স্থানীয় বাসিন্দা শাহিন আক্তার জানান, বর্তমানে দেবিনগর ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ড থেকে ভাঙন শুরু হয়েছে। ভাঙন রোধে ব্যবস্থা না নিলে এই ইউনিয়নের ধুলাউড়ি হাট, দেবীনগর কেন্দ্রীয় ঈদগাহ, দাখিল মাদরাসা, দেবীনগর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, দেবীনগর দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়, দিয়াড় মহাবিদ্যালয়, ইসলামিয়া মাদরাসাসহ অনেক স্থাপনা নদীগর্ভে বিলীন হতে পারে।

সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য বকুল হোসেন বলেন, ভাঙন বন্ধ না করলে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ অনেক স্থাপনা ও কৃষিজমি বিলীন হয়ে যাবে। তাই নদী ভাঙনের কথা চেয়ারম্যানকে জানিয়েছি। তিনি বিষয়টি দেখবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে দেবিনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম বিশ্বাস জানান, নদী ভাঙনের বিষয়টি ইতোমধ্যেই জেনে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণকালে নদীভাঙন সামাল দেওয়া কঠিন হয়ে পড়ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪২৫ ঘণ্টা, জুলাই ০৬, ২০২১
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa