ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ কার্তিক ১৪২৮, ২১ অক্টোবর ২০২১, ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

সিলেটে ‘কঠোর লকডাউনও’ ঢিলেঢালা!

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০ ঘণ্টা, জুলাই ৫, ২০২১
সিলেটে ‘কঠোর লকডাউনও’ ঢিলেঢালা! ছবি: মাহমুদ হোসেন 

সিলেট: করোনার ভয় নেই। বিধি-নিষেধ অমান্য করলে শাস্তির ভয় যেন কেটে গেছে মানুষের।

ফলে ‘কঠোর লকডাউনের’ পঞ্চম দিনে সিলেট অনেকটা ঢিলেঢালা কাটছে।  

সোমবার (৫ জুলাই) আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মাঠে তৎপর থাকলেও অন্যান্য দিনের তুলনায় মানুষের আনাগোনা বেড়েছে। হাট-বাজার থেকে রাস্তাঘাটে ছিল মানুষের জটলা। এমনকি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সামনে দিয়েও মানুষ নানা ছুতায় দিব্যি ঘুরে বেড়িয়েছেন।

তবে এদিন মানুষের বাইরে বেরিয়ে আসার নির্দিষ্ট কিছু কারণ ছিল। সোমবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত ব্যাংক খোলা ছিল। অন্যদিকে টিসিবির পণ্য কিনতেও মানুষের দীর্ঘ সারি দেখা গেছে ট্রাকের পেছনে। এছাড়া হাট-বাজারেও ছিল মানুষের জটলা। বিশেষ করে নগরের কাজির মাছের আড়ত চরমভাবে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত ছিল। এ কয়দিন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কঠোরতা নিয়ে মানুষের মধ্যে ভয় কাজ করলেও এদিন তা দেখা যায়নি।

এ অবস্থায় ‘লকডাউন’ আরো এক সপ্তাহ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

সরেজমিনে দেখা গেছে, এদিন রাস্তার পাশের রেস্তোরাঁ, দোকানপাট বেশিরভাগ খেলা ছিল। সার্টার অর্ধেক খোলা রেখে ব্যবসা চালু রেখেছিলেন দোকানিরা। সেসব দোকানে লোকজনকে ভিড় করতে দেখা গেছে।  

নগরের বিভিন্ন পয়েন্ট ও রাস্তাঘাটে মানুষের আনাগোনা আগের চেয়ে বেড়েছে। ফলে ‘লকডাউনের’ কঠোরতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে।

এছাড়া লেটের ব্যাংক পাড়ায় ভিড় করেছেন লোকজন। স্বল্প সময়ের জন্য ব্যাংক খোলা থাকায় গ্রাহকরা ভোগান্তিতে পড়েন। আর্থিক লেনদেন করতে সকাল থেকে লোকজনকে দীর্ঘ সারিতে অপেক্ষমান থাকতে দেখা গেছে। তবে লাইনে থেকেও দুপুর দেড়টার পর অনেকে ব্যাংকে ঢুকতে করতে পারেননি।

এদিকে সোমবার থেকে খোলা বাজারে টিসিবির পণ্য বিক্রি শুরু হয়েছে। নগরের ছয়টি স্থানে ট্রাকে টিসিবির পণ্য নিয়ে এলে ক্রেতারা ভিড় করতে দেখা গেছে।

 
এদিন সকাল থেকে অন্যান্য দিনের মতো নগরে সেনাবাহিনী, বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ ও আনসার সদস্যদের দায়িত্ব পালন করতে দেখা গেছে। সেসঙ্গে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত নগর চষে বেড়াতে দেখা গেছে।  

গত ২৪ ঘণ্টায় সিলেটে আরও ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন আরও ২৫৩ জন। আর এ সময়ে সিলেটে ‘কঠোর লকডাউনেও’ বেড়েছে মানুষের বিচরণ।  

বাংলাদেশ সময়: ২০০২ ঘণ্টা, জুলাই ০৫, ২০২১ 
এনইউ/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa