ঢাকা, সোমবার, ২ কার্তিক ১৪২৮, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

কালের কণ্ঠ শুভসংঘের ত্রাণ পেয়ে মিনা রানীর চোখে আনন্দাশ্রু

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২৫ ঘণ্টা, জুলাই ৪, ২০২১
কালের কণ্ঠ শুভসংঘের ত্রাণ পেয়ে মিনা রানীর চোখে আনন্দাশ্রু ...

নীলফামারী: বয়সের ভারে ন্যুব্জ বিধবা মিনা রানী। একা একা চলতে পারেন না।

সঙ্গী লাগে হেঁটে কোথাও যেতে। নিজের মাথা গোজার ঠাঁইও নেই তার। বাধ্য হয়ে অন্যের ভিটায় মেয়েকে নিয়ে আশ্রয় খুঁজেছেন তিনি। আশ্রয় দিলেও তিন বেলা খেতে দিবে না কেউ। আধাপেট খেতে অপেক্ষায় থাকতে হয় কারো সাহায্যের।  

সেই মিনা রানী মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে এসেছিলেন কালের কণ্ঠ শুভসংঘের ত্রাণ নিতে। ত্রাণ পেয়ে তার চোখে আনন্দাশ্রু, মুখে তৃপ্তির হাসি। মিনা রানী বলেন, ‘এটা নিয়ে কদিন খামু। তোমাদের জন্য আশীর্বাদ করমু। তোমাগের ভগবান আরো দেক’।

মিনা রানীর মত নীলফামারী জেলার সদর উপজেলায় কয়েক শ অসহায় ও বয়স্কদের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করেছে কালের কণ্ঠ শুভসংঘ। আজ রবিবার উপজেলার লক্ষ্মীচাপ বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে বসুন্ধরা গ্রুপের সহায়তায় এই ত্রাণ সহায়তা দেওয়া হয়।

ত্রাণ পাওয়া আরেকজন বিধবা সৌর বালা। তার খেয়ে পড়ে বেঁচে থাকার একমাত্র মাধ্যম বয়স্ক ভাতার সামান্য টাকা। শুভসংঘের ত্রাণসামগ্রী পেয়ে তিনি বলেন, ‘তোমরা যদি না দেন, তাইলে আমরা কেং (কেমন) করে পাই। তোমরা জন্য আশীর্বাদ করমু’।

অতুল রায় নামের এক উপকারভোগী বলেন, ‘লকডাউন দিয়া হামরা যে কি কষ্টত আছি। মুই বুড়া মানুষ। চার্জারভ্যান চলে খাও। কিন্তু আইজ কয়দিন থাকি কাম নাই। মুই বাড়িত বসি আছো। বউ ছাওয়া নিয়া মেলা কষ্টত আছো। বসুন্ধরা গ্রুপ আইজ মুখ চাউল-ডাইল দেইল। যাক এখন হামরা কয়দিন পেট ভরে খাবার পামো’।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহিদ মাহমুদ। বসুন্ধরা গ্রুপের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি বলেন, বসুন্ধরা গ্রুপ আমাদের নীলফামারী উপজেলার দরিদ্রদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করেছে। আমরা নীলফামারীবাসী তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ। যারা ত্রাণ পেয়েছেন তারা ১০ দিন এই খাদ্যদ্রব্য খেতে পারবেন। তাই ‘লকডাউনের’ মধ্যে কেউ ঘর থেকে বের হবেন না।

ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে আরও উপস্থিত ছিলেন কালের কণ্ঠ শুভসংঘের পরিচালক জাকারিয়া জামান, কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক শামীম আল মামুন, সদস্য শরীফ মাহ্দী আশরাফ জীবন, নীলফামারী জেলা শুভসংঘের সভাপতি অধ্যক্ষ আনোয়ার হোসেন, কালের কণ্ঠের নীলফামারি প্রতিনিধি ভুবন রায় নিখিল, লক্ষ্মীচাপ বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি গোলাম মোস্তফা, নীলফামারী সদর উপজেলার শুভসংঘের সদস্য কমর উদ্দিন, সাইদুল আলম প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ২১২৫ ঘণ্টা, জুলাই ০৪, ২০২১
কেএআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa