ঢাকা, রবিবার, ৮ কার্তিক ১৪২৮, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

কবরস্থানের উপর দিয়ে রাস্তা নির্মাণ, ইউএনও’র বিরুদ্ধে মামলা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪২৫ ঘণ্টা, জুলাই ৪, ২০২১
কবরস্থানের উপর দিয়ে রাস্তা নির্মাণ, ইউএনও’র বিরুদ্ধে মামলা

জামালপুর: জামালপুরের বকশীগঞ্জে নিলক্ষিয়া ইউনিয়নে পাগলাপাড়া গ্রামে একটি কবরস্থানের উপর দিয়ে রাস্তা নির্মাণকে কেন্দ্র করে গ্রামবাসীদের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।  

এই উত্তেজনার ফল আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে।

এ নিয়ে জামালপুর বিজ্ঞ আদালতে পাগলাপাড়া গ্রামের শাহাজামাল বাদী হয়ে বকশীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) বিবাদী করে একটি মামলাও করেছে। মামলা নম্বর ১১৬/২১ (অন্যপ্রকার)।

বাড়ি-ঘর ভেঙে ও কবরস্থানের ওপর দিয়ে জোর করে রাস্তা নির্মাণের অভিযোগ এনে বকশীগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও), প্রকল্পের সভাপতি নৌরুজ ও সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন মিস্টারকে বিবাদী করে মামলাটি দায়ের করা হয়।

এ নিয়ে আদালতও বেশ বিব্রত। সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে ইতোমধ্যে কমিশন গঠনে সরজমিনে তদন্তের জন্য ২ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন। গত শুক্রবার কমিটির সদস্যরা তদন্তও করে গেছেন।

মামলার বাদী শাহাজামাল সাংবাদিকদের জানান, আমি নিতান্তই গরীব মানুষ, আমার বসতভিটা দখল করে একটি প্রভাবশালী চক্র রাস্তা নির্মাণের পাঁয়তারা করছে। সে কারণে ন্যায় বিচারের আশায় রাস্তা নির্মাণ বন্ধ করতে আদালতের শরণাপন্ন হয়েছি।

স্থানীয় বাসিন্দা ও নিলক্ষিয়া ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য রকুনুজ্জামান জানান, রাস্তাটি নির্মাণ হচ্ছে দীর্ঘদিনের পুরানো একটি কবরস্থানের ওপর দিয়ে। কবরস্থানের ওপর দিয়ে রাস্তা নির্মাণ হলে এদিকে কবরস্থানের জায়গা কম হবে অন্যদিকে কবরস্থানের পবিত্রতা ক্ষুন্ন হবে।

প্রকল্পের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন জানান, যে জায়গা দিয়ে রাস্তা নির্মাণ হচ্ছে সেটি অনেক আগে থেকেই রাস্তা ছিল। পারিবারিক বিরোধের জের ধরে সরকারের উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করতে প্রথম থেকেই একটি চক্র রাস্তা নির্মাণে বাঁধা দিয়ে আসছে। তারা ব্যক্তিগত সম্পত্তির উপর দিয়ে রাস্তা হচ্ছে এমন মিথ্যা অভিযোগ এনে তারা আদালতে মামলা করেছে। আদালত কর্তৃক গঠিত কমিশনের সদস্যরা এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এখন আদালত যে সিদ্ধান্ত দিবে সেই মোতাবেক কাজ করবো।

নিলক্ষিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম সাত্তার বাংলানিউজকে জানান, এ নিয়ে আদালতে একটি মামলা হয়েছে ও একটি কমিশন গঠিত হয়েছে। কমিশনের সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন, এখন আদালত যে সিদ্ধান্ত দিবে সেই মোতাবেকই কাজ করা হবে।

এ বিষয়ে বকশীগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুনমুন জাহান বক্তব্য দিয়ে অপরাগতা প্রকাশ করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪১৬ ঘণ্টা, জুলাই ০৪, ২০২১
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa