ঢাকা, বুধবার, ৪ কার্তিক ১৪২৮, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

‘ভুতুড়ে কাণ্ডে’ হাসপাতালে পোশাক কারখানার ১২ শ্রমিক

সাভার করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪৬ ঘণ্টা, জুলাই ৩, ২০২১
‘ভুতুড়ে কাণ্ডে’ হাসপাতালে পোশাক কারখানার ১২ শ্রমিক

সাভার (ঢাকা): সাভারের আশুলিয়ায় একটি তৈরি পোশাক কারখানায় আকস্মিক ‘ভুতুড়ে কাণ্ডে’ বমি, মাথা ব্যথাসহ নানা উপসর্গ নিয়ে অসুস্থ পড়ছেন শ্রমিকরা। তাদের নিকটস্থ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

শনিবার (০৩ জুলাই) সকাল ৮টার দিকে আশুলিয়ার ডংলিয়ান ফ্যাশন (বিডি) লিমিটেড কারখানায় এ ঘটনা ঘটে। পরে তাদের নিকটস্থ হাবিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

অসুস্থ শ্রমিকরা হলেন- মাহফুজুল (২৭), আরিফ হোসেন (৩০), মোশারফ হোসেন (২৭), সৌরভ (২৫), আরিফা (২৫), মোছা. বেবী (২৫), আলেয়া (৩০), রিনা আক্তার (২৭), শ্যামলী (২৭) ও সার্জেন্ট (অব.) ইসমাইল (৬০)। এদের মধ্যে দুইজনের অবস্থায় গুরত্বর হওয়ায় তাদের রেফার্ড করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী শ্রমিকরা জানায়, সকালে প্রথম একজন নারী শ্রমিক অসুস্থ হন। এরপর তাকে হাসপাতালে রেখে আসতেই আরো অন্তত ১২ জন বমি ও মাথাব্যথার উপসর্গ নিয়ে কারখানার ভিতরে ফ্লোরে পড়ে যান। পরে তাদেরও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আজ আবার এই সংখ্যাটা বেশি। প্রতিদিনতো একজন না একজন অসুস্থ হচ্ছেই। গত ১৫ দিন ধরে এই সমস্যা শুরু হয়েছে। এরআগেও একজন সিকিউরিটি গার্ড এই কারখানায় মারা গেছে।  

ওই কারখানা শ্রমিক রব্বানী বাংলানিউজকে বলেন, অন্তত ১২-১৪ জন শ্রমিক অসুস্থ হয়ে যখন পড়ে যায় তখন স্যারেরা ভিডিও করে আর কয় নাটক করে। ওনারা মেডিক্যালে নিবো না। আমরা জোর কইরা মেডিক্যালে আনছি। অনেক আগে থেকেই এই সমস্যা। অসুস্থ অনেকেই বলছে ভুতের কিছু ছায়া দেখছে। স্যারেরা আমাদের নিয়ে উপহাস করে। আমরা নাকি ছুটির জন্য এমন করি।  

এ বিষয়ে হাবিব জেনারেল হাসপাতালের ম্যানেজার বিল্লু দাস বাংলানিউজকে বলেন, একটি কারখানার বেশকয়েক জন শ্রমিককে অসুস্থ অবস্থায় আনা হয়েছে। ডাক্তাররা তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিচ্ছেন। আসলে কি হয়েছে পর্যবেক্ষণের পর জানাতে পারবেন।

ডংলিয়ন ফ্যাশন (বিডি) লিমিটেড কারখানার অ্যাডমিন ম্যানেজার আশরাফুল বাংলানিউজকে বলেন, আসলে কারখানায় একটু গরম বেশি। এ কারণেই এমন হতে পারে। তবে আমরা শ্রমিকদের হাসপাতালে নিয়ে এসেছি। কারখানা বন্ধ রেখেছি সবাইকে ছুটি দিয়ে দিয়েছি।

বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশ বস্ত্র ও পোশাক শিল্প শ্রমিক লীগ ফেডারেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক সারোয়ার হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, এমন সমস্যা প্রায় এই কারখানা হয়ে থাকে। আমরা অনেকবার বিষয়টি নিয়ে কারখানা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেছি তারা কোনো গুরুতই দেয়নি। তারা শ্রমিকদের মারার চেষ্টা করছে। বিষয়টি তদন্তে করে ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪০ ঘণ্টা, জুলাই ০৩, ২০২১
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa