ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ কার্তিক ১৪২৮, ২১ অক্টোবর ২০২১, ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

রাজশাহীতে কঠোরতার মধ্যেও বাড়ছে ব্যক্তিগত যানবাহন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫২৭ ঘণ্টা, জুলাই ৩, ২০২১
রাজশাহীতে কঠোরতার মধ্যেও বাড়ছে ব্যক্তিগত যানবাহন

রাজশাহী: রাজশাহীতে ‘লকডাউন’ বাস্তবায়নে শনিবারও কঠোর অবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। সকাল থেকে মোড়ে ব্যারিকেড দিয়ে এবং অস্থায়ী চেকপোস্ট বসিয়ে যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে।

প্রধান প্রধান সড়কসমূহে চলছে পুলিশ, র‌্যাব ও সেনাবাহিনীর টহল। এরপরও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কঠোরতা ভেঙে সড়কে বেড়েছে ব্যক্তিগত যানবাহনের সংখ্যা। এরমধ্যে প্রাইভেট কার ও মোটরসাইকের চলাচল বেশি লক্ষ্য করা গেছে।

বিভিন্ন স্টিকার লাগিয়ে বের হওয়া এসব যানবাহন তল্লাশি ও বাধার মুখেও পড়ছে। উপযুক্ত প্রমাণ ও সদুত্তোর দিতে না পারলেই মামলা ও আর্থিক জরিমানার মুখে পড়তে হচ্ছে।  

রাজশাহীর জেলা প্রশাসন জানিয়েছে ‘কঠোর লকডাউনে’ নির্দেশনা অমান্য করায় গত শুক্রবারও (২ জুলাই) মহানগরসহ রাজশাহী জেলায় ৬৭ হাজার ৭৫০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। মামলা হয়েছে ৬৬ জনের বিরুদ্ধে। এছাড়া ৩৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।  

এর আগের দিন বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে ৫০ জনের কাছ থেকে ৬৬ হাজার ৭৫০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। সংক্রামক রোগ প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল আইনে (দণ্ডবিধি-১৮৬০, ২০১৮ সাল) ৫০ জনকে এ জরিমানা করা হয়েছে।

এদিকে তৃতীয় দিনেও ‘কঠোর লকডাউন’ বাস্তবায়নে কঠোর অবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। সকাল থেকে রাজশাহী শহরের প্রধান প্রধান সড়ক ও পাড়া-মহল্লার গলিপথেও টহল দিচ্ছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। একমাত্র কাঁচাবাজার ছাড়া শনিবার দুপুর পর্যন্ত কোথাও মানুষের ভিড় লক্ষ্য করা যায়নি। এখনও শহর ফাঁকাই রয়েছে।

তবে রাজশাহী মহানগর ও জেলার প্রতিটি উপজেলায় জরুরি সেবাসমূহ চালু রয়েছে আগের মতোই। এর মধ্যে রোগী বহনকারী অ্যাম্বুলেন্স, ওষুধ ও খাবার পরিবহনের যানবাহনগুলো স্বাভাবিক নিয়মেই চলাচল করছে। যারা জরুরি প্রয়োজনে ওষুধের প্রেসক্রিপশন হাতে নিয়ে বাইরে বের হচ্ছেন তাদেরও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর জেরার মুখে পড়তে হচ্ছে।

পুলিশ, র‌্যাব ও আনসার ব্যাটালিয়নের সদস্যদের পাশাপাশি রাজশাহী সিটি এবং প্রতিটি উপজেলায় সেনাবাহিনীর দু’টি করে টিম টহল দিচ্ছে। পাশাপাশি তিন প্লাটুন বিজিবি মাঠ পর্যায়ে ‘লকডাউন’ কার্যকরে দায়িত্ব পালন করছে। সর্বাত্মক ‘লকডাউন’ শুরুর তৃতীয় দিনেও তাই গোটা রাজশাহীজুড়েই কঠোর অবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।  

শনিবার (৩ জুলাই) সকাল থেকে রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আবু আসলাম নিজেই মাঠে রয়েছেন। রাজশাহী শহরের সাহেব বাজার জিরোপয়েন্টসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়কে যানবাহন থামিয়ে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলছেন। পাশাপাশি ‘লকডাউন’ কার্যকরে সার্বিক বিষয়গুলো জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তিনি মনিটরিং করছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৬ ঘণ্টা, জুলাই ০৩, ২০২১
এসএস/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa