ঢাকা, শনিবার, ৭ কার্তিক ১৪২৮, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

চার ঘণ্টার ব্যবধানে করোনায় আক্রান্ত বাবা-ছেলের মৃত্যু

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১৫ ঘণ্টা, জুলাই ২, ২০২১
চার ঘণ্টার ব্যবধানে করোনায় আক্রান্ত বাবা-ছেলের মৃত্যু ...

ঠাকুরগাঁও: করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ঠাকুরগাঁওয়ে চার ঘণ্টার ব্যবধানে বাবা ইয়াকুব আলী (৭০) ও ছেলে আজগর আলীর (৫৫) মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার (২ জুলাই) হরিপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জিয়াউল হাসান মুকুল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার রাতে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরে বাবা ইয়াকুব আলী মারা যান এবং ওই হাসপতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজগর আলী মারা যান।  
এদের মৃত্যুতে এলাকাবাসীকে আরো সচেতন হওয়ার জন্য আহ্বান করেন চেয়ারম্যান।

উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, গত ২৫ জুন শুক্রবার ইয়াকুব আলী জ্বর, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিতে আসেন। এসময় তাকে করোনা টেস্টের পরামর্শ দেওয়া হয়। পরে স্বজনরা তাকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করায়। সেখানেই তার করোনা পজিটিভ আসে। পাঁচদিন পর ইয়াকুব আলীর ছেলে আজগর আলী হরিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা দেন। এসময় তারও করোনা পজিটিভ হলে সেই দিন রাতেই তাকেও এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করায়।  

ঠাকুরগাঁওয়ের সিভিল সার্জন ডা. মাহফুজার রহমান সরকার বলেন, অনেক চেষ্টার পরও জেলায় করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার কমছে না। এ অবস্থায় সবাইকে আরও অনেক বেশি সচেতন হতে হবে। সচেতনতার পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে এবং সরকারি বিধিনিষেধ মেনে চলতে হবে। তাহলে করোনা ভাইরাসকে মোকাবিলা করা সম্ভব। অন্যথায় সামনে ভয়াবহ অবস্থা হতে পারে বলে আশঙ্কা করছি।

ঠাকুরগাঁও জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় ২৭৬টি নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে নতুন করে ১২৫ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। যা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ৪৫ দশমিক ২৮ শতাংশ। এ সময় করোনা আক্রান্ত হয়ে জেলার কেউ মারা যাননি।  

স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত ঠাকুরগাঁও জেলায় করোনায় মোট শনাক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৫০৯ জন। সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ৪৫ জন এবং মারা গেছেন ৮৩ জন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৫ ঘণ্টা, জুলাই ০২, ২০২১
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa