ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ কার্তিক ১৪২৮, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জাতীয়

প্রতিবেশীর সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে বিনা অপরাধে হাজতবাস!

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২৩ ঘণ্টা, জুলাই ১, ২০২১
প্রতিবেশীর সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে বিনা অপরাধে হাজতবাস!

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার ভুলতা পুলিশ ফাঁড়িতে পুলিশের অনুমতি নিয়ে হাজতে আসামির সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে বিনা অপরাধে রুহুল আমিন এক নিরীহ ব্যক্তিকে চার ঘণ্টা হাজতে আটকে রাখার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে।  

বুধবার (৩০ জুন) বিকেলে উপজেলার ভুলতা পুলিশ ফাঁড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

 

বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) দুপুরে ভুক্তভোগী রুহুল আমিন রূপগঞ্জ প্রেসক্লাব কার্যালয়ে এসে সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন।

রুহুল আমিন জানান, গত বুধবার বিকেলে রাজু নামে তার এক প্রতিবেশী ছোট ভাইকে গ্রেফতার করে ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নাজিম উদ্দিন। রাজু একজন কাপড় ব্যবসায়ী। বুধবার বিকেল ৪টার দিকে রুহুল আমিন তার প্রতিবেশী ছোট ভাইয়ের সঙ্গে দেখা করতে ভুলতা পুলিশ ফাঁড়িতে কনস্টেবলের অনুমতি নিয়ে দেখা করতে যায়।  

বিষয়টি ভুলতা ফাড়ির ইনচার্জ নাজিম উদ্দিন দেখতে পেয়ে বিনা অপরাধে রুহুল আমিনকে চড়-ধাপ্পড় দিতে থাকেন। এক পর্যায়ে ইনচার্জ নাজিম উদ্দিন ক্ষিপ্ত হয়ে রুহুল আমিনকে হাজতে আটকে রাখেন। রাত ৮টার দিকে রুহুল আমিনের কাকুতি মিনতিতে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে রুহুল আমিন অভিযোগ করে আরো জানান, তিনি একজন সাধারণ সরল মানুষ। পুলিশের এমন আচরণে সাধারণ মানুষ পুলিশ ফাঁড়িতে আর যাবে না।  

এ বিষয়ে ভুলতা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নাজিম উদ্দিন মজুমদার বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। পুলিশ ফাঁড়িতে এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেনি।

এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএফএম সায়েদ বলেন, ফুটপাতে চাঁদাবাজির অভিযোগে রাজুকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রুহুল আমিনও তার সহযোগী ছিল। এ কারণে তাকে রাজুর সঙ্গে দেখা করতে দেওয়া হয়নি। তবে কাউকে হাজতে আটকে রাখার কোনো ঘটনা ঘটেনি।

বাংলাদেশ সময়: ২০৫৫ ঘণ্টা, জুলাই ০১, ২০২১
এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa