ঢাকা, বুধবার, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০ সফর ১৪৪৩

জাতীয়

করোনায় মৃত্যুর ১৫ ঘণ্টা পর সৎকার করলো সিডিও ইয়ুথ টিম

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪৮ ঘণ্টা, জুন ১১, ২০২১
করোনায় মৃত্যুর ১৫ ঘণ্টা পর সৎকার করলো সিডিও ইয়ুথ টিম মরদেহ সৎকারের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। ছবি: বাংলানিউজ

সাতক্ষীরা: করোনা আক্রান্ত হয়ে নিজ বাড়িতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার (১০ জুন) বিকেলে মারা যান সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার গৌরিপুর গ্রামের বিধান চন্দ্র মণ্ডল (৩৭)। মৃত্যুর পর পালিয়ে যায় স্বজনরা।

যেখানে মৃত্যুবরণ করেছিলেন সেখানেই দীর্ঘ ১৫ ঘণ্টা পড়ে থাকে মরদেহ।  

এমনই পরিস্থিতিতে খবর পেয়ে শুক্রবার (১১ জুন) তার মরদেহ সৎকারে এগিয়ে আসে স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সিডিও ইয়ুথ টিম।

এ কাজে অংশ নেন সিডিওর প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক গাজী আল ইমরানসহ সংগঠনের হাফিজ, মিলন এবং জামাল বাদশাসহ কয়েকজন যুবক।

স্থানীয়রা জানান, আপনজনরা তার মরদেহ ফেলে রেখে চলে যায়। পরে বিষয়টি জানানো হয় স্থানীয় স্বেচ্ছসেবী সংগঠন সিডিও ইয়ুথ টিমকে। পরে সংগঠনের সদস্যরা এসে ওই ব্যক্তির মরদেহের সৎকার করেন।  

এ বিষয়ে সিডিওর প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক গাজী আল ইমরান বলেন, শুক্রবার ভোর বেলা ঘুম থেকে ওঠার আগেই একটি অজানা নাম্বার থেকে কল আসে। ফোনে এক হিন্দু সম্প্রদায়ের যুবক জানান বিধান চন্দ্র মণ্ডল বৃহস্পতিবার বিকেলে মারা গেলেও এখনো তার সৎকার হয়নি। বিষয়টি নিয়ে আমি সংগঠনের সদস্যদের সঙ্গে আলাপ করি। এসময় সৎকার কাজের জন্য সংগঠনের হাফিজ, মিলন এবং জামাল বাদশা আগ্রহ প্রকাশ করেন। সৎকার কাজে গিয়ে দেখি বিধানের বাড়িতে তার স্ত্রী ছাড়া আর কেউ নেই। বিধান যেখানে মারা গিয়েছিলেন, ঠিক সেখানেই পড়ে আছেন। দীর্ঘ ১৫ ঘণ্টা পার হলেও বিধানকে কেউ স্পর্শও করেনি। আমরা সিডিও ইয়ুথ টিমের পক্ষ থেকে তার সৎকারের ব্যবস্থা করি। একইসঙ্গে তার বাড়িটি লকডাউন করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৫ ঘণ্টা, জুন ১১, ২০২১
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa