ঢাকা, শনিবার, ৫ আষাঢ় ১৪২৮, ১৯ জুন ২০২১, ০৮ জিলকদ ১৪৪২

জাতীয়

শিক্ষকের কাছ থেকে ৩ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ 

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫৬ ঘণ্টা, জুন ১০, ২০২১
শিক্ষকের কাছ থেকে ৩ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ 

ঢাকা: রাজধানীর মতিঝিলে জসিম উদ্দিন (৫৭) নামে এক মাদরাসাশিক্ষকের কাছ থেকে তিন লাখ টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। অসুস্থ ওই মাদরাসাশিক্ষককে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার  (১০ জুন) সকাল ১১টার পর এ ঘটনা ঘটে। কে বা কারা বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে ওই শিক্ষককে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে তার চিকিৎসা চলছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মাদ্রাসাশিক্ষক জানান, মতিঝিলের জামিয়া দারুল উলুম মাদরাসার সিনিয়র বাংলা শিক্ষক তিনি। তার বাড়ি গাজীপুর বোর্ডবাজার বড়বাড়ি এলাকায়। বর্তমানে মাদরাসা বন্ধ থাকায় টিকাটুলিতে ছেলের বাসায় থাকেন।

জসিম উদ্দিন জানান, সকালে তিনি মতিঝিল আইএফআইসি ব্যাংকে টাকা তুলতে যান। সেখান থেকে তিন লাখ টাকা তোলেন। এরপর এক পাওনাদারকে ওই টাকা পাঠানোর জন্য ইসলামী ব্যাংকের মতিঝিল শাখায় যাচ্ছিলেন। হেঁটে যাওয়ার সময় পথিমধ্যে রাস্তায় এক ব্যক্তি তার গায়ে ইচ্ছাকৃতভাবে ধাক্কা দেন। এতে তিনি রাস্তায় পড়ে যান। এর কিছুক্ষণ পর পরই তিনি অচেতন হয়ে পড়েন। যখন জ্ঞান ফিরে তখন তিনি নিজেকে হাসপাতালের বেডে আবিষ্কার করেন। তার সঙ্গে থাকা টাকার ব্যাগটি খোয়া গেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান, অসুস্থ অবস্থায় বিকেলে কে বা কারা তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। এরপর তাকে জরুরি বিভাগের ওয়ানস্টপ ইমারজেন্সি সেন্টারে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তার ওপর চেতনানাশক কিছু প্রয়োগ করা হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এখন তার জ্ঞান ফিরেছে। তিনি সবকিছুই বলতে পারছেন।  

বাংলাদেশ সময়: ২০৫৫ ঘণ্টা, জুন ১০, ২০২১
এজেডএস/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa