ঢাকা, শনিবার, ৫ আষাঢ় ১৪২৮, ১৯ জুন ২০২১, ০৮ জিলকদ ১৪৪২

জাতীয়

মতলবে নিখোঁজ ২ নৌযান শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৪৩ ঘণ্টা, জুন ১০, ২০২১
মতলবে নিখোঁজ ২ নৌযান শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার ছবি: বাংলানিউজ

চাঁদপুর: চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার মোহনপুর এলাকায় মেঘনা নদীতে এমভি মক্কা মদিনা-৩ নামে নোঙর করে রাখা বাল্কহেড (বালু বহনকারী ইঞ্জিনচালিত নৌকা) ডুবিতে নিখোঁজ দুই নৌযান শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) বিকেল ৩টার দিকে মোহনপুর দশআনিঘাট সংলগ্ন এলাকা থেকে নিখোঁজ মো. মিজানুর রহমান (২৫) ও মো. সাজু শিকদার নামে দুই নৌযান শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার করে কোস্টগার্ড চাঁদপুর স্টেশনের ডুবুরি দল।

কোস্টগার্ড চাঁদপুর স্টেশন থেকে জানানো হয়, বৃহস্পতিবার ভোর আনুমানিক ৪টার দিকে মোহনপুর দশআনি ঘাট সংলগ্ন এলাকায় মেঘনায় নোঙর অবস্থায় চারজন নৌশ্রমিকসহ এমভি মক্কা মদিনা-৩ নামে বালুর বাল্কহেডটি ডুবে যায়। এর মধ্যে মহিউদ্দিন ও নাঈম সিকদার নামে দু’জন সাঁতরে পাড়ে উঠে সক্ষম হলেও অন্য দু’জন পানিতে ডুবে যায়।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে কোস্টগার্ড স্টেশন চাঁদপুর স্টেশনের কমান্ডার লেফটেন্যান্ট এম সাদিক হোসেনের নেতৃত্বে একটি ডুবুরি দল উদ্ধার কার্যক্রম শুরু করে বিকেল ৩টার দিকে দু’জনের মরদেহ বাল্কহেডের ইঞ্জিন রুমের ভেতর থেকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

উদ্ধার দু’জন হলেন- বরগুনার তালতলী উপজেলার পশ্চিম জারাখী গ্রামের মো. জাহাঙ্গীর হাওলাদারের ছেলে মো. মিজানুর রহমান ও একই গ্রামের সালাম শিকদারের ছেলে মো. সাজু শিকদার (২৩)।

লেফটেন্যান্ট এম সাদিক হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, বাল্কহেডটি ঘটনাস্থলে নোঙর অবস্থায় ছিল। কী কারণে ডুবেছে তার কারণ জানা যায়নি। তবে ডুবে যাওয়ার সময় দু’জন শ্রমিক উপরে থাকায় সাঁতার কেটে উপরে উঠতে সক্ষম হয়। কিন্তু বাল্কহেডের ইঞ্জিন রুমে থাকা দুই শ্রমিক উঠতে না পারায় নিখোঁজ হন। সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত উদ্ধার কার্যক্রম চালিয়ে নিখোঁজ ওই দু’জনকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয় ডুবুরি দল।

তিনি আরও বলেন, উদ্ধার দুই শ্রমিকের মরদেহ মোহনপুর নৌপুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। কোস্টগার্ড ছাড়াও নৌপুলিশ এবং ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযানে অংশ নেয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪০ ঘণ্টা, জুন ১০, ২০২১
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa