ঢাকা, শনিবার, ৫ আষাঢ় ১৪২৮, ১৯ জুন ২০২১, ০৮ জিলকদ ১৪৪২

জাতীয়

ঈদ শেষ, তবে শেষ হয়নি ঘরে ফেরা

ইমতিয়াজ আহমেদ, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৫৫ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০২১
ঈদ শেষ, তবে শেষ হয়নি ঘরে ফেরা

মাদারীপুর: পবিত্র ঈদুল ফিতর ছিল শুক্রবার (১৪ মে)। ঈদ শেষ হলেও ঘরে ফেরা শেষ হয়নি দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের।

ঈদের পরদিন শনিবার (১৪ মে) সকাল থেকে ঘরমুখো মানুষের প্রচুর ভিড় রয়েছে শিমুলিয়া ফেরিঘাটে। মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ও মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার বাংলাবাজার রুট এখনো ঘরমুখো মানুষের পদচারণায় মুখর।  

সকাল থেকে শিমুলিয়া ঘাট থেকে যাত্রী বোঝাই হয়ে ফেরিগুলো শিবচরের বাংলাবাজার ঘাটে এসে ভিড়ছে। যাত্রীদের পাশাপাশি ফেরিতে হালকা যানবাহনও দেখা যাচ্ছে। তবে ঢাকামুখী যাত্রীদের ভিড় এখনো তেমন শুরু হয়নি। বাংলাবাজার থেকে স্বল্প সংখ্যক যাত্রী নিয়েই ফেরিগুলো শিমুলিয়ার উদ্দেশে ছেড়ে যাচ্ছে। নৌরুটে সবগুলো ফেরি চলমান রয়েছে। বিআইডব্লিউটিসির বাংলাবাজার ঘাট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।  

সূত্রটি জানিয়েছে, ঈদের দ্বিতীয় দিনেও শিমুলিয়া ঘাটে যাত্রীদের প্রচুর চাপ রয়েছে। যারা ঈদের আগে বাড়ির ফিরতে পারেননি, তারা এখন বাড়ি ফিরছেন। বাড়ি ফেরাদের সংখ্যা এখনো প্রচুর। প্রত্যেকটি ফেরিতেই প্রচুর যাত্রী রয়েছেন। একইসঙ্গে হালকা যানবাহনও রয়েছে ফেরিতে। এর আগে গত বুধবার ফেরিতে প্রচণ্ড ভিড়ে গরমের কারণে পাঁচ যাত্রীর মৃত্যু হয়। এরপর থেকেই অতিরিক্ত যাত্রী যাতে না তোলা হয়, সেদিকে ফেরি কর্তৃপক্ষের কড়া নজর রয়েছে। এছাড়া বাড়ানো হয়েছে ফেরির সংখ্যাও।  

মিরাজুল ইসলাম নামের টেকেরহাট এলাকার এক যাত্রী বলেন, ঈদের আগে বাড়ি যেতে পারিনি। তাই আজ যাচ্ছি। ভেবেছিলাম, ফেরিতে ভিড় কম হবে। কিন্তু দৃশ্য উল্টো। আজও প্রচুর ভিড় রয়েছে।

আহসান হাবীব বলেন, গত বুধবার ফেরিতে ভিড়ে পাঁচজনের মৃত্যুর খবর পেয়ে বাড়ি ফেরা বন্ধ করেছি। ঈদের পরে ভিড় কম হবে ভেবে আজ রওনা দিয়েছি। কিন্তু ভিড় রয়েছে। অনেক যাত্রীই ঈদের আগে বাড়ি ফিরতে পারেনি। আজ তারা যাচ্ছেন।

বাংলাবাজার ঘাট সূত্রে জানা গেছে, সকাল থেকে ঘরমুখো মানুষের যাত্রা অব্যাহত রয়েছে। ফেরিঘাটের সবগুলো ঘাট চালু থাকায় শিমুলিয়া থেকে একযোগে তিন/চারটি ফেরি যাত্রী ও হালকা যানবাহন নিয়ে বাংলাবাজার ঘাটে আসছে। বাংলাবাজার ঘাটে যাত্রী নামিয়ে দিয়েই ফেরিগুলো শিমুলিয়ার উদ্দেশে ছুটে যাচ্ছে। তবে ঢাকায় ফেরার চাপ এখনো বাড়েনি। রোববার ভোর থেকে ঢাকাগামী চাপ বাড়ার সম্ভবনা রয়েছে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) বাংলাবাজার ফেরিঘাটের ব্যবস্থাপক মো. সালাহউদ্দিন আহমেদ
জানান, ফেরি চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। এখনো ঘরমুখো যাত্রীদের ভিড় আছে ফেরিতে।

বাংলাদেশ সময়: ১২৫২ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০২১
এসআই
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa