ঢাকা, শনিবার, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ১২ জুন ২০২১, ০১ জিলকদ ১৪৪২

জাতীয়

তবুও হাতিরঝিলে শেষ বিকেলে জনস্রোত

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫৬ ঘণ্টা, মে ১৪, ২০২১
তবুও হাতিরঝিলে শেষ বিকেলে জনস্রোত

ঢাকা: করোনা ভাইরাস রোধে সরকারের সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে পবিত্র ঈদুল ফিতরের উদযাপনে হাতিরঝিলে এসে জড়ো হয়েছে রাজধানীবাসী।  

পুরো হাতিরঝিল এলাকা ঘুরে দেখা গেছে,  কোথাও সামাজিক দূরত্ব মেনে দাঁড়ানোর মতো জায়গা নেই।

 
শুক্রবার (১৪ মে) ঈদুল ফিতরের দিন বিকেলে হাতিরঝিল এলাকায় যেনো কোনো রাজনৈতিক দলের সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে বলে মনে হচ্ছে। কারণ হাতিরঝিলে দলে দলে মানুষ ছুটছে এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে।

মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্রগুলো বন্ধ থাকায় মানুষ ছুটির দিনে হাতিরঝিলে এসেছেন বিনোদনের জন্য।
 স্ত্রী-সন্তান নিয়ে রাজধানীর ভাটারা এলাকা থেকে হাতিরঝিলে ঘুরতে এসেছেন আজিজুল ইসলাম। সরকারের বিধি নিষেধের মধ্যে হাতিরঝিলে আসার কারণ জানিয়ে তিনি বাংলানিউজকে বলেন, অনেক দিন ধরে ঘরবন্দি পরিবারের সদস্যরা। সন্তানকে কোনো ভাবেই বাসায় আটকে রাখা যাচ্ছিলো না। প্রতিদিনই সে বাসা থেকে ঘুরতে বের হতে চায়। তাই বাধ্য হয়েই ঈদের শেষ বিকেলে হাতিরঝিলে এসেছি। কিন্তু এসে দেখি স্রোতের মতো মানুষ এখানে আসছে। এখানে এত মানুষের ভিড়ের খবর আগে জানলে আসতাম না।  

দুপুরের পর থেকে হাতিরঝিল এলাকায় অপেক্ষা করলেও বেলা গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে মানুষের ভিড় বাড়তে থাকে। রাজধানীর বিভিন্ন স্থান থেকে সিএনজিচালিত অটোরিকশা, মোটরসাইকেল ও ব্যক্তিগত গাড়িতে করে মানুষ হাতিরঝিলে আসছেন। হাতিরঝিলে আগতদের অর্ধেকই তরুণ-তরুণী। বাকিরা এসেছেন স্ত্রী-সন্তান নিয়ে। সামাজিক দূরত্বের বালাই না থাকলেও ঘুরতে আসা তরুণ-তরুণীদের মধ্যে অনেককেই মাস্ক ছাড়াই ঘুরতে দেখা গেছে।
হাতিরঝিল এলাকায় দায়িত্বরত নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, মানুষকে জোর করে কিছু বোঝানো যায় না। করোনায় এত মারা যাচ্ছে। করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দিনে দিনে বাড়ছে তবুও করোনার ভয় মানুষের মধ্যে কাজ করছে না।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৬ ঘণ্টা, মে ১৪,২০২১
এসই/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa