ঢাকা, মঙ্গলবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ১৮ মে ২০২১, ০৫ শাওয়াল ১৪৪২

জাতীয়

স্পিডবোট দুর্ঘটনা: ২ জনের বাড়ি ভাণ্ডারিয়ায়

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১০৩ ঘণ্টা, মে ৫, ২০২১
স্পিডবোট দুর্ঘটনা: ২ জনের বাড়ি ভাণ্ডারিয়ায় মানজুরুল ইসলাম বাপ্পী

পিরোজপুর: মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার বাংলাবাজার-শিমুলিয়া নৌরুটের কাঁঠালবাড়ী ঘাটসংলগ্ন এলাকায় স্পিডবোট দুর্ঘটনায় নিহতদের মধ্যে দু’জনের বাড়ি পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া উপজেলায়।

মঙ্গলবার (৪ মে) তাদের দাফনকার্য সম্পাদন করা হয়।

 

নিহত দু’জন হলেন- ভাণ্ডারিয়ার উপজেলার পশ্চিম পশারীবুনিয়া গ্রামের রঞ্জন অধিকারীর ছেলে জনি অধিকারী (২৬) ও একই উপজেলার নদমূলা শিয়ালকাঠী ইউনিয়নের চরখালী গ্রামের ওহিদুল খানের ছেলে মানজুরুল ইসলাম বাপ্পী (২৩)।  

পশারীবুনিয়া গ্রামের স্বপন হালদার বাংলানিউজকে জানান, ঢাকায় একটি কেজি স্কুলে (ইংলিশ মিডিয়াম) সিকিউরিটি গার্ডের চাকরি করতেন জনি। বড় ভাইয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে সোমবার (৩ মে) বাড়ি আসতে গিয়ে স্পিডবোট পারাপারের সময় বালুবাহী একটি বাল্কহেডের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ঘটনাস্থলেই জনিসহ ২৬ জনের মৃত্যু হয়। মঙ্গলবার বিকেলে ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী জনির মরদেহ পারিবারিক শ্মশানে সমাহিত করা হয়।

অপরদিকে, বাপ্পীকে মঙ্গলবার সকালে নিজ গ্রাম চরখালী পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। বাপ্পী বরিশালের সরকারি জাগুয়াস্কুল অ্যান্ড কলেজে একাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিলেন।
পরিবারে তিন ভাই-বোনের মধ্যে বাপ্পী সবার ছোট।

বাংলাদেশ সময়: ০১০১ ঘণ্টা, মে ০৫, ২০২১
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa