ঢাকা, শনিবার, ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ১৫ মে ২০২১, ০২ শাওয়াল ১৪৪২

জাতীয়

লকডাউনের সুযোগে নাচোলের কৃষিজমিতে পুকুর কাটার হিড়িক

এ কে এস রোকন, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯০৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৭, ২০২১
লকডাউনের সুযোগে নাচোলের কৃষিজমিতে পুকুর কাটার হিড়িক চলছে পুকুর খননের কাজ। ছবি: বাংলানিউজ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ: করোনা রোধে সারাদেশে চলছে সর্বাত্মক লকডাউন। এ সুযোগে কিছু অসাধু লোকজন রাতারাতি কৃষি উর্বর জমিতে শুরু করেছে পুকুর খনন।

সরকারি কোনো নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করেই প্রশাসনকে ম্যানেজ করে তারা চালিয়ে যাচ্ছে এ খননকাজ। জেলার নাচোল উপজেলার বরেন্দ্র এলাকার কৃষিজমিতে পুকুর খননের এ অভিযোগ উঠেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, রাজশাহীর ওয়াল্টন প্লাজার জনৈক ব্যবসায়ী ইকবাল রাজশাহীর সদরে প্রশাসনের তোপের মুখে কৃষিজমিতে পুকুর খননে ব্যর্থ হয়ে গত বছর থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল ২ নম্বর ফতেপুর ইউনিয়নের পাহাড়পুর গ্রামে প্রায় ২শ বিঘা কৃষিজমিতে সরকারি নিয়ম অমান্য করে পুকুর খনন করে। প্রশাসনের নজর ফাঁকি দিয়ে বর্তমানে লকডাউনের মধ্যে ও পাহাড়রপুর মৌজার ৩৩০ ও ৬২৯ নম্বর দাগের প্রায় পঞ্চাশ বিঘা কৃষিজমিতে নতুন করে পুকুর খনন কাজ চলছে।

বরেন্দ্র অঞ্চলের এসব উর্বর কৃষিজমিতে পুকুর খনন করায় পানিপ্রবাহ আটকে থাকায় পার্শ্ববর্তী জমির মালিকদের জমিতে ফসল উৎপাদন করতে হিমশিম খেতে হয়।

ওই এলাকার কৃষক সেরাজুল মিয়া জানান, এখানে সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে যেভাবে রাতারাতি কৃষিজমিতে পুকুর খননের কাজ করছে তাতে করে এ মাঠের কৃষিজমিতে ফসল উৎপাদন ব্যাহত হবে। প্রথমে তারা কৃষিজমির চারপাশে মাটি দিয়ে বাঁধ বেধে দখল শুরু করার পর পুকুর খনন কাজ করছে বলে জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে পাহাড়ারপুর এলাকায় পুকুর খননের নিয়োজিত ম্যানেজার সেলিমের সঙ্গে কথা হয়। কিভাবে তারা কৃষি জমিতে রাতারাতি পুকুর খনন কাজ করছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, লকডাউনে সবকিছু বন্ধ তাই এ সুযোগে প্রশাসনকে ম্যানেজ করেই পুকুর খনন কাজ অব্যাহত রয়েছে।

এ বিষয়ে ফতেপুর ইউনিয়নের ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা নুরুজ্জামানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, খুব শিগগিরই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে পুকুর খননকারীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ০৯০২ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৭, ২০২১
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa