ঢাকা, শনিবার, ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ১৫ মে ২০২১, ০২ শাওয়াল ১৪৪২

জাতীয়

ডাকাত সন্দেহে দুই জনকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪১ ঘণ্টা, এপ্রিল ১২, ২০২১
ডাকাত সন্দেহে দুই জনকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা

হবিগঞ্জ: হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলার গুণীপুর গ্রামে ডাকাত সন্দেহে দুই যুবককে ফিকল দিয়ে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে হত্যার ঘটনায় দুইটি মামলা হয়েছে। একটি মামলায় হত্যার অভিযোগ ও আরেকটিতে ডাকাতির চেষ্টার অভিযোগ করা হয়েছে।

তবে মামলাগুলোতে কোনো আসামির নাম উল্লেখ করা হয়নি।
 
সোমবার (১২ এপ্রিল) রাতে লাখাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইদুর রহমান বাংলানিউজকে জানান, ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহগুলো তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় রোববার (১১ এপ্রিল) রাতে লাখাই থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মিঠুন তালুকদার বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা ও ডাকাতি চেষ্টার অভিযোগে আরেকটি মামলা দায়ের করেছিলেন। তবে দুইটি মামলাই আসামি অজ্ঞাত রাখা হয়েছে।
 
মরদেহগুলোর ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক ডা. দেবাশীষ দাশ জানান, দুইটি মরদেহেই অনেকগুলো আঘাত রয়েছে। একটি মরদেহের হাত ভাঙা এবং মরদেহটির শরীরে অজস্র আঘাত। ব্যাপকভাবে এদের মারপিট করা হয়েছে। আঘাত সম্পর্কে বিস্তারিত বর্ণনা ও মৃত্যুর কারণ ময়নাতদন্তের রিপোর্টে উল্লেখ থাকবে।
 
স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, গত শনিবার দিবাগত রাতে একদল লোক গুণীপুর গ্রামে ডাকাতি করতে আসে। তখন গ্রামবাসী হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার পুরাইকলা গ্রামের মৃত ইউনুছ আলীর ছেলে হুমায়ুন মিয়া (৩০) ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার ধরমন্ডল গ্রামের মৃত ফজল মিয়ার ছেলে আব্দুল হামিদ ওরফে আহমদ মিয়াকে (৪৫) দেশীয় অস্ত্র দিয়ে পিটিয়ে ও ফিকল দিয়ে খুঁচিয়ে হত্যা করে।
 
বাংলাদেশ সময়: ২১৪০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১২, ২০২১
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa