ঢাকা, বুধবার, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০ সফর ১৪৪৩

জাতীয়

কোম্পানীগঞ্জে সাংবাদিক মুজাক্কিরের দাফন সম্পন্ন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২১
কোম্পানীগঞ্জে সাংবাদিক মুজাক্কিরের দাফন সম্পন্ন সাংবাদিক মুজাক্কিরের দাফন সম্পন্ন

নোয়াখালী: পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কিরের (২৫) মরদেহ নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে তার গ্রামের বাড়িতে দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে।

রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) রাত ৮টার দিকে জানাজা শেষে তার পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডে তার বাড়িতে মরদেহ এসে পোঁছায়।  

মরদেহ দেখে বারবার অজ্ঞান হয়ে যাচ্ছেন মুজাক্কিরের মা-বাবা, ভাই-বোনরা। স্বজন, সহকর্মী ও স্থানীয়দের আহাজারিতে এলাকার পরিবেশ ভারী উঠেছে।

নিহত বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির ওই ওয়ার্ডের নোয়াব আলী মাস্টারের ছেলে।  

মুজাক্কির সাত ভাই-বোনের মধ্যে সবার ছোট। বোনের বাড়িতে থেকে পেশাগত দায়িত্ব পালন করতেন। চলতি বছর তিনি নোয়াখালী সরকারি কলেজ থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়ে মাস্টার্স সম্পন্ন করে।  

মুজাক্কির অনলাইন পোর্টাল বার্তা বাজার ও দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি ছিলেন।

নিহত মুজাক্কিরের বাবা মাস্টার নোয়াব আলী বাংলানিউজকে বলেন, মুজাক্কিরের মরদেহ রাতে সাড়ে ৭টার দিকে বাড়িতে এসে পৌঁছায়। রাত ৮টার দিকে স্থানীয় আজগর আলী দাখিল মাদ্রাসা মাঠে জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।  

তিনি আরও বলেন, আমার বয়স ৭৫ চলছে। তার মাও বয়োবৃদ্ধ। কিছু দিন আমাদের বয়সের কথা চিন্তা করে আমাদের জন্য একেবারে নতুনভাবে একটি পারিবারিক কবরস্থান তৈরি করি। কিন্তু আজ আমরা সবাই রয়ে গেলাম। পরিবারের সবার ছোট মুজাক্কির সবার আগে ওই কবরস্থানে দাফন হচ্ছে।

বড় ভাই ফখরুদ্দিন মুফাচ্ছির বলেন, মুজাক্কিরের মৃত্যুতে মা শোকে পাথর হয়ে গেছেন। ছোট ছেলে হিসেবে মায়ের সঙ্গে তার ছিল দারুণ সখ্যতা। এখন ভাইয়ের মৃত্যু সংবাদে নিজেকে সামলাতে পারছেন না।

শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের চাপরাশির হাটের তরকারি বাজারে সেতুমন্ত্রীর ছোট ভাই ও বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ ও গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটে। সে সময় সাংবাদিক মুজাক্কির সংঘর্ষের সংবাদ সংগ্রহের সময় গুলিবিদ্ধ হন। এ অবস্থায় প্রথমে তাকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাত ১০টা ৪৪ মিনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।  

** কোম্পানীগঞ্জে সংঘর্ষে সাংবাদিক গুলিবিদ্ধ
** সাংবাদিক মুজাক্কিরের মৃত্যুতে ওবায়দুল কাদেরের শোক

বাংলাদেশ সময়: ০৮৫৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২১
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa