ঢাকা, সোমবার, ১৬ ফাল্গুন ১৪২৭, ০১ মার্চ ২০২১, ১৭ রজব ১৪৪২

জাতীয়

নুসরাত হত্যার ফাঁসির আসামির জন্য দোয়া!

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৪৩৯ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৫, ২০২১
নুসরাত হত্যার ফাঁসির আসামির জন্য দোয়া! দোয়া মাহফিল

ফেনী: ফেনীতে আলোচিত নুসরাত হত্যা মামলায় ফাঁসির আদেশপ্রাপ্ত আসামি রুহুল আমিনের কারামুক্তি ও সুস্থতা কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।  

বুধবার (১৩ জানুয়ারি) সোনাগাজী পৌর আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের ব্যানারে এ মিলাদ ও দোয়ার আয়োজন করা হয়।

মিলাদ ও আলোচনা সভা শেষে এ নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া ও ক্ষোভ বিরাজ করছে।

তবে পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু তৈয়ব বাবুলের সভাপতিত্বে উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এ আয়োজনের বিষয়ে কোন কিছু জানেন না বলে দাবি করেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মফিজুল হক।  

এই কর্মসূচী সম্পর্কে তিনি এবং দলের উপজেলা সাধারণ সম্পাদক অবগত নন জানিয়ে তিনি বলেন, কেউ আমাকে বলে অনুষ্ঠান করেনি। অফিস খোলা পেয়েছে তারা করে ফেলেছে। ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত কোনো আসামির জন্য দোয়া মাহফিল করা সমীচীন নয়। যারা এটি করেছে, অন্যায় হয়েছে।  

সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম খোকন বলেন, এ অফিসে এ ধরনের মিটিংয়ের ব্যাপারে আমরা কিছুই জানতাম না।  

জানা যায়, এ সভায় সোনাগাজী উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সাখাওয়াতুল হক বিটু, মতিগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রবিউজ্জামান বাবু, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম ভূট্টো, মঙ্গলকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন বাদল, জেলা পরিষদের সদস্য নাছির উদ্দিন আরিফ ভূঁইয়া, চরচান্দিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহিম মানিক, বগাদানা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন বাবুল, আমিরাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরু মেম্বার, ইউপি সদস্য গেদু মিয়া ভূঁইয়া, দীন মোহাম্মদ, মতিগঞ্জ ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মোহাম্মদ হোসেন টিপু ও পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেনসহ যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মী অংশ নেন।  

মিলাদ পূর্ব আলোচনায় মতিগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রবিউজ্জমান বাবু বলেন, আমাদের নেতা রুহুল আমিন ভাই নির্দোষ। রুহুল আমিন ও মুকসুদ আলমকে মুক্তি দিয়ে আমাদের মাঝে ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য আবেদন জানাচ্ছি। যারা ষড়যন্ত্রকারী তাদের যেন বিচার হয়। তাদের শাস্তি আমরা যেন স্বচক্ষে দেখতে পারি, আল্লাহর কাছে সেই দোয়া করি। ’

মিলাদ ও দোয়া পরিচালনা করেন সোনাগাজী উপজেলা ইমাম সমিতির সভাপতি ও বাসস্ট্যান্ড জামে মসজিদের খতিব মাওলানা ফারুক হোসেন।

সভা শেষে উপজেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে রুহুল আমিনের বড় একটি ছবিও স্থাপন করে দলীয় নেতাকর্মীরা। এদিকে আদালতে ফাঁসির রায়প্রাপ্ত আসামীর মুক্তি কামনায় দোয়া ও বক্তব্য আইনবিরোধী বলে মনে করেন সচেতনমহল। বিষয়টি নিয়ে দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।  

২০১৯ সালে ২৪ অক্টোবর নুসরাত জাহান রাফিকে নির্মমভাবে পুড়িয়ে হত্যা ঘটনায় মামলায় উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি রুহুল আমিন ও পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাউন্সিলর মকসুদ আলমের ফাঁসির আদেশ দেন আদালত।

বাংলাদেশ সময়: ০৪৪০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৫, ২০২১
এসএইচডি/জেআইএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa