ঢাকা, শুক্রবার, ৮ মাঘ ১৪২৭, ২২ জানুয়ারি ২০২১, ০৮ জমাদিউস সানি ১৪৪২

জাতীয়

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের আরও কিছু যন্ত্রাংশ প্রস্তুত

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৪০৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩, ২০২০
রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের আরও কিছু যন্ত্রাংশ প্রস্তুত

ঢাকা: রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রথম ইউনিটের রিয়াক্টর ভেসেলের আরও কিছু যন্ত্রাংশ তৈরির কাজ সম্পন্ন হয়েছে। রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পারমাণবিক শক্তি কর্পোরেশনের (রোসাটম) যন্ত্র প্রকৌশল শাখায় এ যন্ত্রাংশ তৈরির কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রকল্প বাস্তবায়নে এবং যন্ত্রাংশ তৈরিসহ যাবতীয় কাজ করছে রোসাটম।

বুধবার (২ ডিসেম্বর) রোসাটম থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।  

এতে বলা হয়, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের আভ্যন্তরীণ যন্ত্রাংশের মধ্যে রয়েছে ১১ মিটার কোর ব্যারেল, কোর বাফেল এবং প্রটেক্টিভ টিউব ইউনিট। এর মোট ওজন ১৭৯ টন। রিয়াক্টর কোর ভেসেলর আভ্যন্তরীণ যন্ত্রসমূহ রাশিয়ার নেস্টিং পুতুল “মাতৃওস্কার” (কৃষাণী রূপের একটি কাঠের পুতুল যার গায়ে আটোসাটো সুদৃশ্য কাপড় থাকে) সাজানো থাকে এবং রিয়াক্টর কভারের গায়ে অত্যন্ত নিখুঁত ও শক্তভাবে সংযোজন করা থাকে। আভ্যন্তরীণ যন্ত্রাংশগুলোর রিয়াক্টরকে কুল্যান্ট প্রবাহ থেকে আলাদা করে। এর অভ্যন্তরে জ্বালানি রাখা হয় এবং এর পাশাপাশি রিয়াক্টর নিয়ন্ত্রণ ও সংরক্ষণের ব্যবস্থাও থাকে। পূর্বের একটি আদর্শ রিয়াক্টর প্রেসার ভেসেলের অভ্যন্তরে চেক প্রি অ্যাসেম্বলি থাকতো যা অন্যান্য আভ্যন্তরীণ যন্ত্রাংশের কাজ করতো। ভবিষ্যতে এ আভ্যন্তরীণ যন্ত্রাংশ বিদ্যুৎকেন্দ্রের যন্ত্রাংশের অ্যাসেম্বলির সময় সংক্ষেপ করবে।

চলতি বছরেই এইএম টেকনোলজির ভল্গোদনস্ক শাখা থেকে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের ইউনিট এক এর জন্যে রিয়াক্টর ও চারটি স্টিম জেনারেটর পাঠিয়েছে। এ প্রতিষ্ঠানটি রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্যে আভ্যন্তরীণ যন্ত্রাংশ, রিয়াক্টর কভারের আপার ইউনিট, আটটি জেনারেটরসহ দু’টি রিয়াক্টর প্রস্তুত করছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, রিয়াক্টর একটি লম্বা সিলিন্ডার আকৃতির পাত্র, এর তল উপবৃত্তাকার এবং এর অভ্যন্তরে কোর ও অন্যান্য যন্ত্রাংশ থাকে। ভিভিইআর ১২০০ রিয়াক্টর এর ওজন প্রায় ৩৩০ টনের বেশি, উচ্চতা ১৩ মিটার ও ব্যাসার্ধ ৪ দশমিক ৫ মিটার। রিয়াক্টরটির ওপরের অংশ কভারের সঙ্গে আবদ্ধ অবস্থায় থাকে এবং এর সঙ্গে ড্রাইভ মেকানিজম, রিয়াক্টর এর কন্ট্রোল,  প্রটেকশন রড এবং কোর যন্ত্রপাতি বাইরের ক্যাবলের নজেল থাকে। রিয়াক্টর কাভারটি ভেসেলের গায়ে ফেনার মতো আটকে থাকে। রিয়াক্টর এর ওপরের অংশে কুল্যান্ট ইনলেট এর নজেল থাকে এবং জরুরি মূহুর্তের সার্কিট লিকেজের জন্য ইমার্জেন্সি কুল্যান্ট নজেল থাকে।

প্রথম ও দ্বিতীয় ইউনিট যথাক্রমে ২০২৩ ও ২০২৪ সাল থেকে কার্যকর হবে। এ বিদ্যুৎকেন্দ্রের রিয়াক্টর ও স্টিম জেনারেটরগুলো প্রস্তুত করছে এইএম টেকনোলজি।

বাংলাদেশ সময়: ০৪০৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৩, ২০২০
এসকে/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa