ঢাকা, রবিবার, ৪ মাঘ ১৪২৭, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০২ জমাদিউস সানি ১৪৪২

জাতীয়

চকরিয়ায় ২০টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ও ২০ একর বনভূমি উদ্ধার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১, ২০২০
চকরিয়ায় ২০টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ও ২০ একর বনভূমি উদ্ধার ছবি: বাংলানিউজ

কক্সবাজার: কক্সবাজারের চকরিয়ায় অভিযান চালিয়ে প্রায় ২০টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় অন্তত ২০ একর বনভূমিও উদ্ধার করা হয়।

কক্সবাজার উত্তর বনবিভাগের ফুলছড়ী রেঞ্জ আওতাধীন জুমনগর ও মেদাকচ্ছপিয়া এলাকায়। মঙ্গলবার (০১ ডিসেম্বর)  বিকেল চারটা পর্যন্ত এ অভিযান চালানো হয়।

বন বিভাগের সহায়তায় চকরিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. তানভীর হোসাইন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

অভিযানে ফাঁসিয়াখালী রেঞ্জ ও ফুলছড়ী রেঞ্জের ভারপ্রাপ্ত রেঞ্জ কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম, ফুলছড়ী বিট কর্মকর্তা আকরাম হোসেন, ডুলাহাজারা বিট কর্মকর্তা ইলিয়াস হোসাইনসহ উভয় রেঞ্জের সকল বিট কর্মকর্তা, ভিলেজার ও চকরিয়া থানার একদল পুলিশ উপস্থিত ছিলেন।

ফুলছড়ি ভারপ্রাপ্ত রেঞ্জ কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম বলেন, ‘মেদাকচ্ছপিয়া জাতীয় উদ্যান ও ফুলছড়ী বিটের জুমনগর এলাকায় বনভূমি দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করছিল ভূমিদস্যুরা। এ খবর পেয়ে চকরিয়া উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় মোবাইলকোর্ট অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় ১৫-২০টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে প্রায় ২০ একর বনভূমি উদ্ধার করা হয়েছে। ’

চকরিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. তানভীর হোসাইন বলেন, ‘ফুলছড়ী রেঞ্জের জুমনগর ও মেদাকচ্ছপিয়া এলাকায় প্রায় ২০ একর পাহাড়ী বনভূমির গাছপালা এবং পাহাড় কেটে অবৈধভাবে ১৫-২০ টি স্থাপনা নির্মাণ করে ভূমিদস্যুরা৷ বনবিভাগের সহায়তায় মোবাইলকোর্ট অভিযানে এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে। ’ 

তিনি  আরও বলেন, ‘সরকারি বনভূমি থেকে এ উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত থাকবে। ’ 

বাংলাদেশ সময়: ২০০৩ ঘন্টা, ডিসেম্বর ০১, ২০২০ 
এসবি/ইউবি 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa