ঢাকা, শুক্রবার, ৭ মাঘ ১৪২৭, ২২ জানুয়ারি ২০২১, ০৮ জমাদিউস সানি ১৪৪২

জাতীয়

উদ্বোধনের আগেই হেলে পড়েছে অ্যাপ্রোচ সড়কের গার্ড ওয়াল

মো.আশিকুর রহমান পীর, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮০৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১, ২০২০
উদ্বোধনের আগেই হেলে পড়েছে অ্যাপ্রোচ সড়কের গার্ড ওয়াল হেলে পড়া অ্যাপ্রোচ সড়কের গার্ড ওয়াল। ছবি: বাংলানিউজ

সুনামগঞ্জ: উদ্বোধনের আগেই হেলে পড়েছে সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার কালনী নদীর ওপর নবনির্মিত ব্রিজের অ্যাপ্রোচ সড়কের গার্ড ওয়াল। যেকোনো সময় এটি ধসে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

 

কিছুটা সংস্কার করা হলেও এখনো কিছু কাজ বাকি রয়েছে বলে জানান এক সহকারী প্রকৌশলী। এতে অ্যপ্রোচ সড়ক নির্মাণে ব্যয় করা সরকারের ৫ কোটি ১৪ লাখ টাকা জলে যাবে বলে ধারণা করছেন দিরাই পৌর এলাকার জনগণ।  

অ্যাপ্রোচ সড়ক অকেজো হয়ে পড়ায় ঝুঁকি থাকায় ২১ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত কালনী ব্রিজ ব্যবহার নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে। কালনী নদীর কারণে দুইভাগে বিভক্ত দিরাই উপজেলাকে এক করার স্বপ্নের যোগাযোগ ব্যবস্থাও হুমকিতে পড়েছে। ব্রিজের পশ্চিম পাড়ের অ্যাপ্রোচ সড়কের একপাশের দুইদিকের গার্ড ওয়াল হেলে পড়েছে। নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার ও কাজে অনিয়ম-দুর্নীতির কারণেই এমনটি হয়েছে বলে মনে করছেন এলাকাবাসী।

উপজেলা সদরের প্রধান সড়ক ব্যবহার করে ব্রিজ ও অ্যাপ্রোচ সড়ক নির্মাণ করা হয়। হেলে পড়ায় অ্যাপ্রোচ সড়কের ওপর দিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। এ যেন শহরের প্রাণকেন্দ্রে বিশাল ধ্বংসস্তুপ। এই উন্নয়ন কাজ এখন শহরের বিষফোঁড়া হয়ে দেখা দিয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার পূর্বাঞ্চলের সঙ্গে উপজেলা সদরের সড়ক যোগাযোগ স্থাপনের জন্য ২০১৩ সালে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের অধীনে ২১ কোটি টাকা ব্যয়ে ২১০ মিটার দৈর্ঘ্যর কালনী ব্রিজের নির্মাণ কাজ শুরু হয়। নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার পর ৫ কোটি ১৪ লাখ টাকা ব্যয়ে ব্রিজের উভয়পাশে গার্ড ওয়াল দিয়ে তিনশ ৭৫ মিটার সংযোগ সড়ক নির্মাণের জন্য ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে দরপত্র আহ্বান করা হয়।
কাজ পায় মেসার্স নূরুল ইসলাম নামে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। শুরুতেই কাজের মান নিয়ে প্রশ্ন দেখা দেয়। সংযোগ সড়কের উপজেলা সদর অংশে একদিকে ১৩৩ ও অন্যদিকে ১০০ মিটার সংযোগ সড়কের উভয় পাশে গার্ড ওয়াল নির্মাণ করে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু ভরাট করে এইচবিবি (ইটসলিং) করা হয়। এই পাড়ের উপজেলা রোডমুখী সংযোগ সড়কের পূর্বদিকের গার্ডওয়ালটি প্রায় দেড় ফুট হেলে গিয়ে ধনুক আকার ধারণ করেছে। বাজারমুখী সংযোগ সড়কের পশ্চিম দিকেও অনেকটা হেলে গেছে। সংযোগ সড়কটি হেলে পড়ায় এলাকাবাসীর আলোচনা-সমালোচনার মুখে, উপজেলা প্রকৌশলী কার্যালয় ঠিকাদারের মাধ্যমে সংযোগ সড়কের মাটি খুঁড়ে রড দ্বারা একপাশের গার্ড ওয়ালের সঙ্গে অন্যপাশের গার্ড ওয়াল টানা দিয়ে ওয়ালটি রক্ষার ব্যর্থ প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তবে এতে কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না। ব্রিজের অপর পাড়ে ৬০ মিটার গার্ড ওয়াল নির্মাণ করা হলেও সেখানে নাম মাত্র মাটি ভরাট করা হয়েছে।

এদিকে ২০১৯ সালের শেষের দিকে কাজ শেষ হয়েছে জানিয়ে উপজেলা প্রকৌশলীকে চিঠি দেয় নির্মাণ সংস্থাটি। উপজেলা প্রকৌশলী কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে কাজ শেষ করার চিঠি পাঠানো হলেও দাপ্তরিকভাবে তা গ্রহণ করা হয়নি।

ব্যবসায়ী ও যুবলীগ নেতা রায়হান চিশতী বলেন, সংযোগ সড়কের উভয়পাশে দোকান ঘরসহ বাসাবাড়ি রয়েছে। গার্ডওয়ালটি হেলে পড়ায় এখানকার বাসিন্দাসহ সবার মধ্যে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। নির্মাণকাজে অনিয়ম দুর্নীতির খেসারত দিতে হচ্ছে শহরবাসীকে। অবিলম্বে এই সংযোগ সড়ক নির্মাণ করে ব্রিজটি উদ্বোধন করার দাবি জানাই।

দিরাই প্রেসক্লাব সভাপতি হাবিবুর রহমান তালুকদার বলেন, কালনী নদী আমাদের উপজেলাকে দুইভাগে বিভক্ত করে রেখেছিলো। বিভক্ত উপজেলাবাসীর স্বপ্নের যোগাযোগ কালনী ব্রিজের গার্ড ওয়াল উদ্বোধনের আগেই হেলে পড়ায় আমরা হতাশ। এর ফলে শুধু কালনী ব্রিজ নয়, উপজেলার পূর্বাঞ্চলকে সড়ক যোগাযোগের আওতায় নিয়ে আসা দুরাশায় পরিণত হয়েছে। উপজেলা প্রকৌশল কার্যালয়ের গাফিলতি এবং অনৈতিক সুবিধা গ্রহণের কারণেই এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

দিরাই উপজেলা এলজিইডির সহকারী প্রকৌশলী হাবিবুর রহমান বলেন, ২০ মিটার টপ সাইডের ছয় ইঞ্চি হেলে গিয়েছিল এখন সেটি ঠিক করা হয়েছে। আরও কিছু কাজ করা বাকি রয়েছে জেলা থেকে ইঞ্জিনিয়াররা ব্রিজটি পরিদর্শন করে জানিয়েছেন তেমন কোনো সমস্যা হবে না।

দিরাই উপজেলা প্রকৌশলী ইফতেখার হোসেন বলেন, এ কাজের রিভাইস ডিজাইন চলছে। এ ব্যাপারে আরও ভাল বলতে পারবেন সুনামগঞ্জ জেলা নির্বাহী প্রকৌশলী।

সুনামগঞ্জ স্থানীয় সরকার বিভাগ (এলজিইডির) নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুব আলম বাংলানিউজকে বলেন, ব্রিজটির অ্যাপ্রোচ সড়কের ব্যাপারে জানি, এটি গত বছরের কাজ। এখনো চলমান আছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৮০৬ ঘণ্টা,  ডিসেম্বর ০১, ২০২০
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa