ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৭ রবিউস সানি ১৪৪২

জাতীয়

শরীয়তপুরে ১৩৯ জেলের কারাদণ্ড-জরিমানা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৫, ২০২০
শরীয়তপুরে ১৩৯ জেলের কারাদণ্ড-জরিমানা ফাইল ছবি

শরীয়তপুর: নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে শরীয়তপুরে পদ্মা নদীতে ইলিশ ধরার দায়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩৯ জেলেকে আটক করে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। একই সঙ্গে জরিমানা ও মামলাও দেওয়া হয়েছে।

 

শনিবার (২৪ অক্টোবর) সকাল থেকে রোববার (২৫ অক্টোবর) সকাল পর্যন্ত জেলার বিভিন্ন উপজেলায় অভিযানে আটকদের এ দণ্ড দেওয়া হয়।  

শরীয়তপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আব্দুর রউফ বাংলানিউজকে জানান, শনিবার সকাল থেকে রোববার সকাল পর্যন্ত জেলার জাজিরা, নড়িয়া, ভেদরগঞ্জ ও গোসাইরহাট উপজেলায় পদ্মা নদীর প্রায় ৮০ কিলোমিটার এলাকায় মৎস্য কার্যালয়, উপজেলা প্রশাসন, থানা পুলিশ, নৌপুলিশ ও কোস্টগার্ডের সমন্বয়ে ১৮টি অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে ১৩৯ জেলেকে আটক করে প্রত্যেককে এক বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। মামলা হয়েছে ২০২টি। জরিমানা করা হয়েছে তিন লাখ ১০ হাজার টাকা। ১৮৩ কেজি ইলিশ ও তিন লাখ ৩১ হাজার মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়েছে।  

মৎস্য কর্মকর্তা আব্দুর রউফ আরও জানান, গত ১৪ অক্টোবর থেকে ইলিশ রক্ষায় অভিযান শুরু হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত ১২ দিনে ৩০২টি অভিযান পরিচালনা করা হয়। এতে মোট ৬৬৫ জেলেকে এক বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এছাড়া ২ দশমিক ৪৪১ মেট্রিক টন ইলিশ ও ৩৫ লাখ ৭২ হাজার ৯০০ মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়। মামলা হয় ৮৬১টি। জরিমানা করা হয় নয় লাখ ৮০ হাজার টাকা।  

ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে গত ১৪ অক্টোবর থেকে আগামী ০৪ নভেম্বর পর্যন্ত ২২ দিন ইলিশ ধরায় সরকারি নিষেধাজ্ঞা জারি রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২১০৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৫, ২০২০ 
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa