ঢাকা, সোমবার, ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২৩ নভেম্বর ২০২০, ০৬ রবিউস সানি ১৪৪২

জাতীয়

মাদক মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগ পুলিশের বিরুদ্ধে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৫, ২০২০
মাদক মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগ পুলিশের বিরুদ্ধে

রাজশাহী: রাজশাহীতে পুলিশের বিরুদ্ধে মা-মেয়েকে মাদকের মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।  

ভুক্তভোগী আশা খাতুন (২৮) রোববার (২৫ অক্টোবর) বিকেলে রাজশাহী নগরীর একটি রেস্তোরাঁয় সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করেন।

আশার মা মাবিয়া খাতুন (৪৮) গত (২৩ অক্টোবর) থেকে এ মামলায় কারাগারে রয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে আশা খাতুন অভিযোগ করে বলেন, গত ২২ অক্টোবর রাতে চন্দ্রিমা থানা পুলিশ নগরীর আসাম কলোনিতে আমাদের বাড়িতে যায়। সে রাতে আমি বাড়ি ছিলাম না। নওগাঁয় বোনের বাসায় বেড়াতে গিয়েছিলাম। পুলিশ বাড়ি থেকে আমার মাকে তুলে নিয়ে যায়। এরপর তার বিরুদ্ধে মাদকের মামলা করা হয়। তাদের বাড়ি থেকে ৯৫ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করা হয়েছে বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।

আশা বলেন, আমরা মাদকের ব্যবসা করি না। এলাকায় সম্মানের সঙ্গেই বসবাস করি। পুলিশ প্রতিপক্ষের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে আমাদের ফাঁসিয়েছে। আমরা এক কাঠা জমিতে বাড়ি করে বসবাস করছি। প্রতিবেশী প্রভাবশালী এক ব্যক্তি জমিটি তার কাছে বিক্রি করে দিতে বলেছিলেন। আমরা বিক্রি না করায় নানাভাবে হেনস্তা করার চেষ্টা করছে। স্থানীয় একজন আওয়ামী লীগ নেতার মাধ্যমে পুলিশকে প্রভাবিত করে আমার মাকে উঠিয়ে নিয়ে গিয়ে মামলা দেওয়া হয়েছে। হেনস্তা করতে আমাকেও পলাতক আসামি করা হয়েছে। পুলিশের দেওয়া মামলার কারণে আমি বাড়িতে থাকতে পারছি না।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন চন্দ্রিমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুম মুনীর বলেন, পরিবারটি মাদকের ব্যবসায় জড়িত। তাদের বাড়িতে অভিযান চালানোর সময় হেরোইন পাওয়া গেছে। তাই মামলা করা হয়েছে। পুলিশ কারও দ্বারা প্রভাবিত হয়নি বলেও দাবি করেন ওসি সিরাজুম।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৫, ২০২০
এসএস/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa