ঢাকা, বুধবার, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৮ রবিউস সানি ১৪৪২

জাতীয়

মহানবমীতে প্রাণ ভরে দেখার ক্ষণ দেবীকে

হোসাইন মোহাম্মদ সাগর, ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৪৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৫, ২০২০
মহানবমীতে প্রাণ ভরে দেখার ক্ষণ দেবীকে দুর্গাপূজা, ছবি: ডি এইচ বাদল

কেন্দ্রীয় পূজামণ্ডপ, ঢাকেশ্বরী থেকে: আর মাত্র একদিন পরেই মর্ত্য ছেড়ে কৈলাসে স্বামীগৃহে ফিরে যাবেন দেবী দুর্গা। পেছনে ফেলে যাবেন ভক্তদের চারদিনের আনন্দ-উল্লাস আর বিজয়ার দিনের অশ্রু।

দেখতে দেখতে বিদায়ের ক্ষণ উপস্থিত। তাইতো দেবীকে এখন প্রাণ ভরে দেখার দিন। ভক্তদের কাছে এখন যেন তার নতুন রূপ অধিষ্ঠিত।

রোববার (২৫ অক্টোবর) হিন্দু সম্প্রদায়ের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজার চতুর্থ দিন মহানবমী। সকালে বিহিত পূজার মাধ্যমে শুরু হয়েছে এর আনুষ্ঠানিকতা।

পুরাণ মতে, এ দিনে লঙ্কা অধিপতি রাবণ বধের পর নবমী তিথিতে ১০৮টি নীলপদ্ম দিয়ে দেবী দুর্গার পূজা করেছিলেন রামচন্দ্র। তাই এ মহানবমীতে ষোড়শ উপাচারের সঙ্গে ১০৮টি নীলপদ্মে পূজিত হবেন দুর্গা।

নবমী সন্ধিক্ষণে অনুষ্ঠিত হবে সন্ধিপূজা। মহিষাসুর বধের সময় দেবী দুর্গা প্রচণ্ড ক্রোধে কৃষ্ণবর্ণ রূপ ধারণ করেছিলেন। তাই পূজার এ আচারের সময় দেবীকে চামুণ্ডা রূপে পূজা করা হয়েছে। অর্থাৎ যিনি চণ্ড ও মুণ্ডের বিনাশিনী। পূজার এ মুহূর্তটি আরও একটি কারণে স্মরণীয়। দেবী দুর্গার আশীর্বাদ নিয়ে রামচন্দ্র এ মুহূর্তেই রাবণকে বধ করেছিলেন।

বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত পঞ্জিকা অনুযায়ী, ভোর ৫টা ১৭ মিনিট থেকে সকাল ৭টার মধ্যে দুর্গা দেবীর মহানবমী কল্পারম্ভ ও বিহিত পূজা প্রশস্ত। অনেকের বিশ্বাস মহানবমীর দিন হচ্ছে দেবী দুর্গাকে প্রাণ ভরে দেখে নেওয়ার ক্ষণ। এদিন অগ্নিকে প্রতীক করে সব দেব-দেবীকে আহুতি দেওয়া হয়। অগ্নি সব দেবতার যজ্ঞভাগ বহন করে যথাস্থানে পৌঁছে দিয়ে থাকেন। এ দিনই দুর্গা পূজার অন্তিম দিন। পরের দিন কেবল বিজয়া ও বিসর্জনের পর্ব।
.নবমী নিশীথে উৎসবের রাত শেষ হয়। নবমী রাত তাই বিদায়ের অমোঘ পরোয়ানা নিয়ে হাজির হয়। এসব বিবেচনা করে অনেকেই মনে করেন নবমীর দিন আধ্যাত্মিকতার চেয়েও অনেক বেশি লোকায়ত ভাবনায় ভাবিত থাকে মন।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নির্মল কুমার চ্যাটার্জী বলেন, আজ মহানবমী। আর একদিন পরেই মা বিদায় নেবেন। এটা আমাদের জন্য একটু কষ্টের মাকে বিদায় দিতে হবে। তবে মা আবারও ধরণীতে আসবেন এবং সুজলা-সুফলাভাবে আমাদের পৃথিবী সাজিয়ে দেবেন এ আমাদের প্রত্যাশা। একইসঙ্গে আমরা এটাও আশা করছি যে, আগামী বছর আমরা উৎসবমুখরভাবেই দুর্গাপূজা পালন করতে পারব।

করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির কারণে সাত্ত্বিকভাবে পূজা অনুষ্ঠিত হলেও এবার দুর্গাপূজাকে ঘিরে সারা দেশজুড়েই ভক্তদের মনে বইছে উৎসবের আমেজ। রাজধানীসহ দেশের পূজামণ্ডপগুলোতে প্রতিদিন সকাল থেকে রাত অবধি ভিড় করছেন বিভিন্ন বয়সী নারী-পুরুষরা। সারাদেশে এবার ৩০ হাজার ২১৩টি মণ্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১১৪০ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৫, ২০২০
এইচএমএস/আরবি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa