ঢাকা, বুধবার, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৮ রবিউস সানি ১৪৪২

জাতীয়

নারায়ণগঞ্জে ভাড়া নিয়ে বিরোধের জেরে ভাড়াটিয়া খুন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৫০ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৩, ২০২০
নারায়ণগঞ্জে ভাড়া নিয়ে বিরোধের জেরে ভাড়াটিয়া খুন ...

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের বন্দরে বকেয়া ঘরভাড়া নিয়ে বিরোধের জের ধরে হামলায় মৃত্যু হয়েছে ২ সন্তানের জনক ও মাছ বিক্রেতা ফয়েজ মিয়ার (৪২)।

শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) পুরান বন্দর প্রধানবাড়ীস্থ মিছির আলী মিয়ার ভাড়াটিয়া ঘরে এ ঘটনাটি ঘটে।

এ ঘটনায় পুলিশ বাড়িওয়ালা উম্মে কুলসুম (৫৫), ভাড়াটিয়া মহিউদ্দিন (৪২) ও তার স্ত্রী শিরিনা বেগমকে (৩৭) আটক করেছে।

এ ব্যাপারে নিহতের স্ত্রী রোজিনা বেগম বাদী হয়ে বন্দর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করবেন বলে জানিয়েছেন।

নিহত ফয়েজ মিয়ার ভায়রা সোহেল রানা গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, মুন্সিগঞ্জ জেলার গজারিয়া থানার চরবলাকি এলাকার মৃত আবুল হোসেন মিয়ার ছেলে ফয়েজ মিয়া ও তার পরিবার দীর্ঘ ৩ বছর ধরে পুরান বন্দর প্রধানবাড়ী এলাকার মিছির আলী মিয়ার বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করে আসছে। করোনার জন্য ব্যবসা মন্দ থাকার কারণে ৭ মাসের ঘর ভাড়া দেওয়া হয়নি। সময় মতো ঘর ভাড়া দিতে না পারায় এ নিয়ে গত ২২ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাড়িওয়ালা উম্মে কুলসুমের সঙ্গে ফয়েজ মিয়ার স্ত্রী রোজিনা বেগমের কথা কাটাকাটি হয়। ওই সময় রোজিনা বেগম বকেয়া ঘর ভাড়া ৭ হাজার টাকার মধ্যে ৪ হাজার টাকা দেন। তারপরও উম্মে কুলসুম ঘর ভাড়ার বিষয়ে অপর ভাড়াটিয়া মহিউদ্দিন ও তার স্ত্রী শিরানা বেগমকে জানায়।

শুক্রবার সকালে ঘর ভাড়াকে কেন্দ্র করে ভাড়াটিয়া মহিউদ্দিন ও মাছ বিক্রেতা ফয়েজের মধ্যে মারামারি হয়। পরে স্থানীয়রা ফয়েজকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ফয়েজকে মৃত ঘোষণা করে।

বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফখরুদ্দিন ভূইয়া জানান, এলাকাবাসীর মাধ্যমে সংবাদ পেয়ে এসআই সালেকুজ্জামান দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে। এ ঘটনায় ৩ জনকে আটক করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২১৫০ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৩, ২০২০
এইচএডি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa