ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ২২ অক্টোবর ২০২০, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

জাতীয়

শ্বশুরবাড়ির আঙিনায় মাটি খুঁড়ে মিলল গৃহবধূর মরদেহ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮০০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৮, ২০২০
শ্বশুরবাড়ির আঙিনায় মাটি খুঁড়ে মিলল গৃহবধূর মরদেহ নিহত আফরোজা ও তার স্বামী বাপ্পী। ছবি: সংগৃহীত

কক্সবাজার: নিখোঁজ হওয়ার ছয় দিন পরে বাড়ির আঙিনার মাটি খুঁড়ে  আফরোজা বেগম (২৪) নামে এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

গতকাল শনিবার (১৭ অক্টোবর) রাত ১১টায় কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার কালারমারছড়া ইউনিয়নের উত্তর নলবিলাস্থ স্বামীর বাড়ির আঙিনার মাটির নিচে পুঁতে রাখা মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

আফরোজা বেগম (২৪) উপজেলার হোয়ানক ইউনিয়নের পূঁইছড়া গ্রামের মো. ইসহাকের মেয়ে ও বদরখালী কলেজের প্রভাষক রাকিব হাসান বাপ্পির স্ত্রী।  

আফরোজার পরিবারের সদস্যদের দাবি, আফরোজাকে হত্যার ঘটনায় তার শ্বশুরবাড়ির সবাই জড়িত। জড়িতদের বিচার দাবি করেন তারা।

জানা গেছে, এক বছর আগে উত্তর নলবিলা গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা হাসান বশিরের ছেলে বদরখালী কলেজের খণ্ডকালীন প্রভাষক রাকিব হাসান বাপ্পির সঙ্গে আফরোজার বিয়ে হয়। এটি উভয়ের তৃতীয় বিয়ে। বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে পারিবারিক অশান্তি চলছিল। এ নিয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা পর্যন্ত গড়ায়। কিছুদিন আগে মামলাটি আপস হওয়ার পর আফরোজাকে বাড়িতে নিয়ে যান প্রভাষক রাকিব হাসান বাপ্পি।

এরপর, গত ১২ অক্টোবর আফরোজা নিখোঁজ হয়েছে বলে বাবার বাড়িতে খবর দেন শাশুড়ি রোকেয়া হাসান। সেই থেকে আফরোজা নিখোঁজ ছিলেন। এরপর থেকে রাকিব হাসান বাপ্পীও পলাতক হয়ে যান।  

মহেশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুল হাই জানান, রাকিব হাসান বাপ্পির বাড়ির আঙিনায় মাটির নিচে পুঁতে রাখা অবস্থায় আফরোজার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহ উদ্ধারের পর থেকে নিহতের শ্বশুরবাড়ির সবাই পলাতক রয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৮, ২০২০
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa