ঢাকা, শুক্রবার, ৮ কার্তিক ১৪২৭, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

জাতীয়

সীমান্ত হত্যা দু’দেশের জন্যই লজ্জার

ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০
সীমান্ত হত্যা দু’দেশের জন্যই লজ্জার

ঢাকা: বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে হত্যাকাণ্ড দুই দেশের জন্যই লজ্জার বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।  

মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ-ভারত যৌথ পরামর্শক কমিশনের (জেসিসি) বৈঠক শেষে তিনি এ মন্তব্য করেন।

জেসিসি বৈঠক শেষে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের ড. মোমেন জানান, বৈঠকে সীমান্ত হত্যা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। আমাদের দু’দেশের মধ্যেই গভীর বন্ধুত্ব রয়েছে। তবে এই বন্ধুত্ব থাকার পরেও সীমান্ত হত্যা আমাদের জন্য যেমন লজ্জার, ভারতের জন্যও লজ্জার। আমরা চাই না সীমান্ত হত্যা ঘটুক।

ড. মোমেন বলেন, সীমান্তে যেখানেই সমস্যা হবে, আমাদের দু’দেশের পক্ষ থেকে যৌথভাবে মনিটরিং করা হবে।

সূত্র জানায়, মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে তিনটায় জেসিসি বৈঠক শুরু হয়। এক ঘণ্টা ধরে বৈঠক চলে। এবারের বৈঠকটি হয় ভার্চ্যুয়ালি। এই বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। আর ভারতের পক্ষে নেতৃত্ব দেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্কর।

সূত্র জানায়, বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে এবারের ৬ষ্ঠ জেসিসি বৈঠকে দু’দেশের সহযোগিতার সব গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। বিশেষ করে তিস্তাসহ অভিন্ন নদীর পানি বণ্টন, সীমান্ত হত্যা, ভারতের ক্রেডিট লাইন, প্রতিরক্ষা, কানেক্টিভিটি, নিরাপত্তা, সন্ত্রসাবাদ প্রতিরোধ, ব্যবসা-বাণিজ্য ইত্যাদি বিষয় বৈঠকে আলোচনা হয়।

দু’দেশের মধ্যে কখনোই ভার্চ্যুয়ালি জেসিসি বৈঠক হয়নি। তবে করোনা ভাইরাসের কারণে এই প্রথম জেসিসি বৈঠক ভার্চ্যুয়ালি অনুষ্ঠিত হলো। জেসিসির ৫ম বৈঠক হয়েছিল দিল্লিতে। ২০১৯ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন ও ভারতের তৎকালীন পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের নেতৃত্বে সেই বৈঠক হয়েছিল।

***জেসিসি বৈঠকে আলোচনায় উঠলো পেঁয়াজ
বাংলাদেশ সময়: ১৮৪৬ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২০
টিআর/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa