ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৭ কার্তিক ১৪২৭, ২২ অক্টোবর ২০২০, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

জাতীয়

ছাগল চোর সন্দেহে গাছে বেঁধে নির্যাতন ঘটনায় গ্রেফতার ১

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫১৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০
ছাগল চোর সন্দেহে গাছে বেঁধে নির্যাতন ঘটনায় গ্রেফতার ১ ফরহাদুল ইসলাম হ্যাপি

সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলায় ছাগল চোর সন্দেহে গাছে বেঁধে যুবককে নির্যাতনের ঘটনায় ফরহাদুল ইসলাম হ্যাপি (৪৪) নামে এক নির্যাতনকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।  

রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) ভোর রাতে নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

ফরহাদুল ইসলাম হ্যাপি উপজেলার জামতৈল গ্রামের রুহুল আমিনের ছেলে।  

কামারখন্দ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রফিকুল ইসলাম  দুপুরে বাংলানিউজকে বলেন, শফিক নামে এক যুবককে গাছে বেঁধে অমানুষিক নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়। বিষয়টি পুলিশের নজরে আসার পর শনিবার উপ-পরিদর্শক আফজাল হোসেন বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। রোববার ভোর রাতে মামলার প্রধান আসামি ফরদাহাদুল ইসলাম হ্যাপিকে গ্রেফতার করা হয়।  

প্রসঙ্গত, শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে উপজেলার জামতৈল কলেজপাড়া গ্রামে ছাগল চোর সন্দেহে শফিক নামে এক যুবককে গাছের সঙ্গে বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করেন হ্যাপি। নির্যাতনের ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যায়, হাত পা বাঁধা যুবকটির হাতের নখগুলো প্লাস দিয়ে ভেঙে ফেলছেন ব্যবসায়ী হ্যাপি। সন্দেহভাজন চোরকে মারতে মারতে হ্যাপি বলেন, ওর আঙুল দুইটা ভাঙছি, অন্য চোরদের নাম না বলা পর্যন্ত সবগুলো আঙুল ভাঙবো তার আগে ছাড়বো না। এ সময় স্থানীয়রা না মেরে যুবককে পুলিশে দেওয়ার জন্য বললেও হ্যাপি তা মানেননি। নির্যাতনের পর গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এ বিষয়ে বাংলানিউজসহ বিভিন্ন মিডিয়ায় সংবাদ প্রকাশের পর পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করে।  

** ছাগল চোর সন্দেহে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa