ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

জাতীয়

তামাক কোম্পানির অপতৎপরতা বন্ধে আইন সংশোধনের দাবি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭০৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০
তামাক কোম্পানির অপতৎপরতা বন্ধে আইন সংশোধনের দাবি তামাকজাত পণ্য

ঢাকা: তামাক কোম্পানির অপতৎপরতা বন্ধে আইন সংশোধনের দাবি করেছেন তামাক বিরোধী জোটের নেতারা।

শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) ক্যাম্পেইন ফর টোব্যাকো ফ্রি কিডস এর সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত ‘কোভিড-১৯ ও তামাক কোম্পানি’ শীর্ষক ওয়েবিনারে এ দাবি করা হয়।

ওয়েবমিনারে মূল বক্তব্য উপস্থাপনা করেন প্রজ্ঞার তামাক নিয়ন্ত্রণ বিষয়ক প্রকল্প প্রধান হাসান শাহরিয়ার।

ওয়েবমিনার থেকে নেতারা বলেন, ‘কোভিড-১৯ মহামারিতে ব্যবসা অব্যাহত রাখতে তামাক কোম্পানিগুলো সামাজিক দায়বদ্ধতা কর্মসূচি (সিএসআর), লবিং, অনুদান ও বিভ্রান্তিমূলক তথ্য প্রচারসহ বিভিন্ন কৌশল ব্যবহার করছে। তামাক কোম্পানির সিএসআর কার্যক্রম বাস্তবায়ন করার সুযোগ থাকায় সরকারের আইনপ্রণেতাদের সঙ্গে অপ্রয়োজনীয় যোগাযোগ তৈরির সুযোগ সৃষ্টি হয়। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে তামাক কোম্পানিগুলো তামাক নিয়ন্ত্রণ বিষয়ক নীতি গ্রহণ এবং বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া বাধাগ্রস্ত করে থাকে। ’

অবিলম্বে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন সংশোধন করে তামাক কোম্পানির সব সিএসআর কার্যক্রম নিষিদ্ধ করার দাবি জানান তারা। একইসঙ্গে ওয়েবিনারে ই-সিগারেটসহ সব ভ্যাপিং এবং হিটেড তামাকপণ্যের উৎপাদন, আমদানি ও বাজারজাতকরণ নিষিদ্ধের আহ্বান জানানো হয়।

সিগারেটের মতো বিষাক্ত পণ্য অত্যাবশ্যকীয় পণ্যের তালিকায় থাকাকে প্রধানমন্ত্রীর ২০৪০ সালের মধ্যে তামাকমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গীকারের পরিপন্থি বলে উল্লেখ করেন।

দ্রুততম সময়ের মধ্যে ১৯৫৬ সালের নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন সংশোধন করে তামাকপণ্যকে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার দাবি জানান তারা।

ওয়েবিনারে আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন তামাক বিরোধী বিভিন্ন জোট এবং সংঘঠনের প্রতিনিধিরা।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০
আরকেআর/এফএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa