ঢাকা, বুধবার, ১২ কার্তিক ১৪২৭, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

জাতীয়

হোসেনপুরের সাবেক ইউএনও’র বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ, তদন্ত শুরু

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১২ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০
হোসেনপুরের সাবেক ইউএনও’র বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ, তদন্ত শুরু শেখ মহি উদ্দিন

কিশোরগঞ্জ: কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর উপজেলার সাবেক নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শেখ মহি উদ্দিনের বিরুদ্ধে ওঠা হাট-বাজারের উন্নয়নে অনিয়মের অভিযোগের তদন্ত শুরু হয়েছে।

বর্তমানে শেখ মহি উদ্দিন হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জের ইউএনও হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।


 
মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে কিশোরগঞ্জের স্থানীয় সরকারের উপপরিচালকের কার্যালয়ে এ তদন্ত হয়।  

তদন্ত সংশ্লিষ্ট চিঠিতে দেখা যায়, উপজেলার হাট-বাজার রক্ষণাবেক্ষণ/উন্নয়ন খাতের অর্থ দিয়ে প্রকল্প গ্রহণ/চেক ছাড় করার ক্ষেত্রে অনিয়ম করা হয়েছে। এ বিষয়টি উল্লেখ করে গত ৯ আগস্ট হোসেনপুর ইউএনও কার্যালয় থেকে কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসনে চিঠি দেওয়া হয়। এরপর কিশোরগঞ্জের স্থানীয় সরকার কার্যালয়ের উপপরিচালক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ এ বিষয়ে গত ৯ সেপ্টেম্বর সংশ্লিষ্টদের চিঠি দেন। সেই চিঠিতে তদন্ত কাজে মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) সংশ্লিষ্টদের নথিপত্র/রেজিস্টারসহ যথাসময়ে উপস্থিত থাকতে বলা হয়।

এ ব্যাপারে হোসেনপুরের বর্তমান ইউএনও এএসএম জাহিদুর রহমানের ব্যক্তিগত মোবাইল ফোন নম্বরে কল দিলে তিনি রিসিভ করে পরিচয় জানার পর সরকারি নম্বরে কল করতে বলে ফোন কেটে দেন। পরে জেলা প্রশাসনের ওয়েবসাইট থেকে পাওয়া নম্বরে কল দিলেও ফোন রিসিভ করা হয়নি। এরপরি আগের আরেকটি সরকারি মোবাইল নম্বরে কল দিলে অন্য আরেকজন ফোন রিসিভ করে বলেন, ইউএনও স্যার মোবাইল ফোন রেখে বাইরে গেছেন।  

এদিকে এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত ইউএনও শেখ মহি উদ্দিন বাংলানিউজকে বলেন, বিষয়টি তেমন না, সমাধান হয়ে যাবে।  

মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে কিশোরগঞ্জের স্থানীয় সরকারের উপপরিচালক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ বাংলানিউজকে জানান, হাট-বাজার রক্ষণাবেক্ষণ ও উন্নয়ন খাতের প্রকল্পের টাকার হিসাবের কাগজপত্র সংশ্লিষ্টদের জমা দিতে বলা হয়েছে। কাগজপত্র না দেখে বলা যাচ্ছে না, কি অনিয়ম হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০০৯ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০
এসআই 
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa