ঢাকা, বুধবার, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

জাতীয়

অভিভাবক থেকেও নেই, সড়ক সংস্কারে 'নাগরিক কথা'

উপজেলা করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭১৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০
অভিভাবক থেকেও নেই, সড়ক সংস্কারে 'নাগরিক কথা' সড়ক সংস্কার করছে 'নাগরিক কথা', ছবি: বাংলানিউজ

পাথরঘাটা (বরগুনা): দ্বিতীয় শ্রেণির পৌরসভা, নামে আছে কাজে নেই। পৌরসভার দু-একটি সড়ক বাদে সব সড়কই খানাখন্দে ভরা।

এক কথায় অভিভাবক থেকেও যেন নেই পাথরঘাটা পৌরসভার! সব কিছু থেকেও যেন কিছুই নেই। এভাবেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন জনগণ।  

পাথরঘাটা পৌর শহরের প্রধান সড়ক অস্তিত্বহীন হয়ে পড়ায় সেগুলো সংস্কারে এগিয়ে এসেছে 'নাগরিক কথা পাথরঘাটা' অনলাইন ভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। সড়কগুলোকে অস্তিত্বে ফিরিয়ে আনতে সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকালে পাথর, ইটের খোয়া ও বালুর মিশ্রণ দিয়ে সড়ক সংস্কার করতে শুরু করেন সংগঠনটির সদস্যরা। তাদের এ কাজের সঙ্গে ঐক্যমত পোষণ করেন পাথরঘাটা উপজেলা নাগরিক অধিকার ফোরামের সদস্যরা এবং স্থানীয় নাগরিকরা।  

নাগরিক কথা পাথরঘাটার পক্ষে রফিকুল ইসলাম কাকন ও খলিলুর রহমান কাজী বলেন, দীর্ঘদিন ধরে পাথরঘাটা পৌর শহরের প্রধান সড়কগুলো চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। দীর্ঘদিন ধরে পৌর কর্তৃপক্ষের কছে ধর্ণা দিলেও কোরো সুরহা হয়নি। তাই আমরা নিজেদের পকেটের টাকা দিয়ে সড়কগুলোর খানাখন্দ ভরাট করতে শুরু করেছি। পৌর শহরের উন্নয়নের জন্য মেয়রের কাছে বিভিন্ন সময় গেলে, তিনি বলেন কোনো ফান্ড নেই।  

তারা আরও বলেন, আমাদের এ কাজ অব্যাহত থাকবে। যেখানেই দেখব নাগরিকরা বঞ্চিত হচ্ছেন, সেখানেই আমরা থাকব।

পাথরঘাটা পৌরসভার কাউন্সিলর মাহবুবুর রহমান খান ও রোকনুজ্জামান রুকু বলেন, যে কাজ আমাদের করার কথা ছিল, সে কাজ নাগরিকরা করছেন, এটি সত্যিই প্রশংসনীয়। এ কাজ করতে না পারা বা বরাদ্দ আনতে না পারাটা পৌর কর্তৃপক্ষের ব্যর্থতা।

পাথরঘাটা পৌরসভার মেয়র আনোয়ার হোসেন আকন মোবাইল ফোনে বলেন, শুনেছি স্থানীয় কিছু যুবক সড়ক মেরামত করছেন। আমি তাদের সুবিধার্থে রোলার পাঠিয়ে দিয়েছি।  

বাংলাদেশ সময়: ১৭১১ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa