ঢাকা, বুধবার, ৬ কার্তিক ১৪২৭, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

জাতীয়

পলাশবাড়ীতে বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি রক্ষায় সরকারকে জমি দান 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭০০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০
পলাশবাড়ীতে বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি রক্ষায় সরকারকে জমি দান  জমির দলিল হস্তান্তর করা হচ্ছে। ছবি: বাংলানিউজ

গাইবান্ধা: গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি রক্ষায় সরকারকে ২৬ শতাংশ জমি দান করেছেন উপজেলার বরিশাল ইউনিয়নের ভগবানপুর গ্রামের ড. মো. লতিফুর রহমান সরকার।  

সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে পলাশবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. কামরুজ্জামানের হাতে জমির দলিল হস্তান্তর করেন তিনি।

ড. মো. লতিফুর রহমান সরকার রংপুর-২২ আসনের (বর্তমান গাইবান্ধা-৩ আসন) সাবেক এমপি ও মুক্তিযোদ্ধা মো. আজিজার রহমান সরকারের ছেলে।  

মো. আজিজার রহমান সরকার ১৯৬২, ১৯৬৭ ও ১৯৭০ সালের নির্বাচনে এমপি নির্বাচিত হন। তিনি পলাশবাড়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও বরিশাল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। মো. আজিজার রহমান সরকার বালুরঘাট লিবারেশন ক্যাম্পের সাধারণ সম্পাদক ও মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন।  

বিষয়টি নিশ্চিত করে পলাশবাড়ীর ইউএনও মো. কামরুজ্জামান বাংলানিউজকে জানান, ১৯৭০ সালের অক্টোবরে নির্বাচনী সফরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সাবেক এমপি ও মুক্তিযোদ্ধা মো. আজিজার রহমান সরকারের বাড়িতে এসেছিলেন।

এসময় বঙ্গবন্ধু সাবেক বরিশাল ইউনিয়ন পরিষদের মাঠে কয়েক হাজার মানুষের সামনে বক্তব্য দিয়েছিলেন এবং বরিশাল ইউনিয়ন ভবন, দাতব্য চিকিৎসালয়, কমিউনিটি সেন্টার, রাসায়নিক সার ও কিটনাশকের গুদাম পরিদর্শন করেন। আর তাই ঐতিহাসিক এই জায়গাটিকে সংরক্ষণ করে জনহিতকর প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার দাবি জানিয়েছেন ওই ইউনিয়নের মানুষ।

কিন্তু অজানাবশত এই জায়গাটি ৯টি পরিবারকে লিজ দেওয়া হয়। তাই ওই লিজ বাতিল করে দান করা এই ২৬ শতাংশ জমি লিজ গ্রহিতাদের নতুন করে দেওয়া হবে।  

এ বিষয়ে ড. মো. লতিফুর রহমান সরকার বাংলানিউজকে জানান, বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিবিজড়িত সাবেক বরিশাল ইউনিয়ন পরিষদের ঐতিহাসিক জায়গাটি সংরক্ষণ করে স্বাস্থ্যসেবা বা জনহিতকর প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার জন্য আমি প্রায় ১৫ লাখ টাকা দামের ২৬ শতাংশ জমি দান করেছি। আমি চাই, সুষ্ঠুভাবে এই প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হোক।  

জমির দলিল হস্তান্তরের সময় উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ কে এম মোকছেদ চৌধুরী বিদ্যুৎ, বরিশাল ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান গোপাল চন্দ্র তালুকদার ও সৈয়দ মাহমুদুল হক, রফিকুল ইসলাম, সাবেক এমপি মো. আজিজার রহমান সরকারের ছেলে শফিকুল ইসলাম, মো. হাফিজুর রহমান সরকার, মো. সাজেদুর রহমান সরকার প্রমুখ।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa