ঢাকা, শুক্রবার, ৮ কার্তিক ১৪২৭, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

জাতীয়

তিস্তা নদী তীরে স্থানীয়দের নির্মিত বাঁধে বৃক্ষ রোপণ করলেন ডিসি

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪৬ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০
তিস্তা নদী তীরে স্থানীয়দের নির্মিত বাঁধে বৃক্ষ রোপণ করলেন ডিসি তিস্তা নদী তীরে স্থানীয়দের নির্মিত বাঁধে বৃক্ষ রোপণ করলেন ডিসি। ছবি: বাংলানিউজ

লালমনিরহাট: তিস্তা নদী ভাঙন ও বন্যা রোধে নিজেদের উদ্যোগে লালমনিরটের কালীগঞ্জ উপজেলার ভোটমারী ইউনিয়নের শৌলমারী চরের জামিরবাড়ী এলাকায় ৫০০ মিটার বাঁধ নির্মাণ করেন স্থানীয়রা। সেই বাঁধটি স্থায়ী করতে সেখানে বৃক্ষ রোপণ করেছেন লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক (ডিসি)।

শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বাঁধটির দু’পাশে বৃক্ষ রোপণের উদ্বোধন করেন ডিসি আবু জাফরু।  

স্থানীয়রা জানান, তিস্তা নদীর বাম তীরে প্রতি বছর বন্যায় ও ভাঙনে নদী তীরের অধিবাসীদের ফসলসহ বসত-বাড়ির ব্যাপক ক্ষতি হয়। এ বছরও জামিরবাড়ী এলাকায় ভাঙন দেখা দেয়। পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) লালমনিরহাট কার্যালয় সেখানে বাঁধ করে দেওয়ার কথা বললেও তা বাস্তবায়ন না করায় বর্ষা আসার আগেই ৫০০ মিটার দীর্ঘ বালুর বাঁধ নির্মাণ করে গ্রামবাসী। বাঁধটি স্থায়ী করতে পাশেই একটি সড়ক নির্মাণ ও বৃক্ষ রোপনের দাবি জানায় গ্রামবাসীর।  

এলাকাবাসীর সেই দাবি পূরণে বাঁধটি স্থায়ী করতে বৃক্ষ রোপণের উদ্যোগ নেন ডিসি আবু জাফর। শনিবার স্বেচ্ছাসেবক নিয়ে নিজে উপস্থিত থেকে ওই বাঁধের দু’পাশে বিভিন্ন ফলজ ও বনজ গাছের প্রায় এক হাজার চারা রোপণ করেন।  

জামিরবাড়ী এলাকার সুফিয়ান রহমান বাংলানিউজকে জানান, গ্রামটিকে রক্ষায় বাঁধ নির্মাণে পাউবো লালমনিরহাটকে একাধিকবার বলা হয়েছে। তারা কোনো উদ্যোগ না নেওয়ায় গ্রামবাসী মিলে বালু ফেলে বাঁধটি নির্মাণ করা হয়।  

ডিসি আবু জাফর বাংলানিউজকে বলেন, গ্রামবাসীর নিজের উদ্যোগে বালু ফেলে নির্মাণ করা তিস্তার ওই বাঁধে গাছ লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া সেখানে পাকা সড়কও করে দেওয়া হবে। রোপন করা গাছগুলো বেঁচে গেলে তিস্তার বাঁধটিও রক্ষা পাবে। শুধু বাঁধ নয়, রক্ষা পাবে অনেকগুলো গ্রাম। এ জন্য রোপন করা গাছের চারাগুলোর যত্ন নিতে গ্রামবাসীর প্রতি আহ্বানও জানিয়েছি।

এসময় ডিসির সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রফিকুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রবিউল হাসান, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাহাঙ্গীর হোসাইন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) ফেরদৌস আহমেদসহ স্থানীয়রা।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪৬ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০
কেএআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa